প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বের দীর্ঘতম ফ্লাইটের পরীক্ষা চালালো কোয়ান্তাস

শাহনাজ বেগম : অস্ট্রেলিয়ান ক্যারিয়ার কোয়ান্তাস কোম্পানির উড়োজাহাজটি একটানা দীর্ঘ আকাশপথ পাড়ি দেয়ার জন্য ফ্লাইটটির চালক, ক্রু এবং যাত্রীদের উপর কি ধরণের প্রভাব ফেলতে পারে তা পরীক্ষা করা হয়েছে। বাণিজ্যিক যাত্রীবাহী বোয়িং ৭৮৭-৯ উড়োজাহাজ ৪৯ জন যাত্রী নিয়ে নিউইয়র্ক থেকে সিডনি পৌঁছে। ওই সময় উড়োজাহাজটি ১৬,২০০ কিলোমিটার অকাশ পথ ১৯ ঘন্টায় পাড়ি দেয়। কোয়ান্তাস গ্রুপের সিইও অ্যালান জয়েস বলেছেন, আশা করি এটি নিয়মিত পরিষেবার পূর্ব প্রস্তুতির একটি যেখানে মানুষ পৃথিবীর এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে দ্রুত সময়ের মধ্যে ভ্রমণ করবে । বিবিসি

আগামী মাসে এটি বিরতি ছাড়া লন্ডন থেকে সিডনিতে যাবে বলে উড়োজাহাজ কোম্পানির পরিকল্পনা রয়েছে। এছাড়াও চলতি বছরের মধ্যে কোয়ান্তাস ফ্লাইট কোন কোন রুটে চলাচল করবে তা নির্ধারণ করবে বলে তারা আশাবাদী। যদি সবকিছু ঠিকঠাক থাকে তবে ২০২২ থেকে ২০২৩ এর মধ্যে তাদের পরিপূর্ণ পরিসেবাগুলো প্রদান করবে। সংবাদ মাধ্যমে জানা যায়, এখনও কোন বাণিজ্যিক উড়োজাহাজ যাত্রী ও পণ্য বহন করে এত দীর্ঘ পথ যাত্রার নজির নেই। কারণ এটিতে পর্যাপ্ত জ¦ালানি তেলের ব্যবস্থা রয়েছে। যার কারণে দীর্ঘ আকাশ পথ যাত্রার সময় বিরতি দিয়ে পুনরায় জ্বালানি পূর্ণ করার প্রযোজন হবে না।

এবারে সিডনিগামী যাত্রীদের বোর্ডিংয়ের সময় তাদের ঘড়ির টাইম সেট ও জেটল্যাগ কমাতে পূর্ব অস্ট্রেলিয়ায় না পৌঁছানো পর্যন্ত জাগিয়ে রাখা হয়। ছয় ঘন্টা পর তাদের উচ্চ-কার্বোহাইড্রেট খাবার পরিবেশন করানো হয় এবং ঘুমানোর আমেজ তৈরি করতে আলো কমিয়ে দেয়া হয়। এ সময় পাইলটের মস্তিষ্কের তরঙ্গ, মেলটোনিনের মাত্রা এবং সতর্কতার পাশাপাশি যাত্রীদের দীর্ঘ পথ পাড়ি দেয়ায় অনুভূতিগুলো কোম্পানির বোর্ড কর্তৃক বিশ্লেষণের অন্তর্ভুক্ত ছিলো। সম্পাদনা : রাশিদুল

সর্বাধিক পঠিত