প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বগুড়ায় ৪ বালুদস্যু গ্রেপ্তার

জিএম মিজান, বগুড়া: বগুড়া সদর উপজেলার করতোয়া নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। এ সময় চারজন বালু ব্যবসায়ীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। একই সঙ্গে বালু উত্তোলনের শ্যালো মেশিনসহ অন্যান্য সরঞ্জাম ঘটনাস্থলেই আগুন দিয়ে পোড়ানো হয়।

শনিবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত শহরের ফুলবাড়ি এলাকায় এই অভিযান পরিচালনা করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন ফুলবাড়ি পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন- রাজাপুরে রাসেল সরকার (৩০), হটিলাপুরের ফিরোজ মিয়া (৩০), ফুলবাড়ির নাহিদ সরকার (২২) এবং মানিক চকের রাকিব (২২)।

জানাযায়, দীর্ঘদিন যাবত প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় করতোয়া নদীর বিভিন্ন পয়েন্টে শ্যালো মেশিন দিয়ে বালু উত্তোলন করা হচ্ছে। বিভিন্ন সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান পরিচালনা করলেও বন্ধ হয়নি বালু উত্তোলন।

এর আগে নদী থেকে বালু উত্তোলন নিয়ে বিরোধে এই এলাকায় খুনের ঘটনাও ঘটেছে। বালু উত্তোলনের ফলে নদী গর্ভে সৃষ্ট খাদের পানিতে ডুবে বেশ কয়েকটি প্রাণহানির ঘটনাও ঘটেছে। এরপরও বন্ধ করা যায়নি বালু দস্যুদের কার্যক্রম।

বালু উত্তোলনের সরঞ্জাম আগুনে পোড়ানো হয় শনিবার পুলিশের একটি দল আকস্মিক এই অভিযান চালায়। এ সময় পুলিশ দেখে বালু দস্যুরা পালানোর চেষ্টা করে। পুলিশ ধাওয়া করে চারজনকে গ্রেপ্তার করে।

পরে বালু তোলার সরঞ্জাম শ্যালো মেশিনসহ অন্যান্য সরঞ্জাম আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া হয়। পুলিশ পরিদর্শক শফিকুল ইসলাম এ প্রতিবেদককে বলেন, ‘নদী থেকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের কারণে জলাধার পরিবর্তন হওয়া ছাড়াও আশপাশের ফসলি জমি গর্তে পরিণত হচ্ছে। অভিযানে গ্রেপ্তারকৃত চারজনসহ ২০ জনের নামে থানায় মামলা করা হয়েছে। সম্পাদনা: জেরিন মাশফিক

সর্বাধিক পঠিত