প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

এতো সমালোচনা কেনো?

আসিফ নজরুল : জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি ড. মীজানুর রহমানকে চিনি অনেক বছর ধরে। তিনি একজন খাঁটি আওয়ামী লীগার। বহু ছদ্মবেশী ও সুবিধাবাদী আওয়ামী লীগারের তুলনায় সজ্জন ও ভালো মানুষ। তিনি ভিসির পদ ছেড়ে যুবলীগের দু:সময়ে এর দায়িত্ব নিতে প্রস্তুত আছেন বলে জানিয়েছেন।ফেসবুক থেকে

এটা নিয়ে এতো সমালোচনার কি হলো বুঝলাম না? এর আগে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষকতা ছেড়ে এমপি বা মন্ত্রী হয়েছেন এমন লোকও তো আছে এদেশে। এমনকি শিক্ষকতা ছেড়ে নিজের স্বার্থে বিদেশ চলে গেছেন বা অন্য কোন লাভজনক পদে গেছেন এমন নজীরও আছে।

ড, মীজানের একটি বড় গুন তিনি প্যচালো মানুষ না। যুবলীগের চেয়ারম্যান পদে যাওয়াকে আপনি অরুচিকর ভাবতে পারেন। কিন্তু এটা সমাজ পচনের উদাহরন ভাবাটা টু মাচ্। এর পেছনে উনার টাকা পয়সা বানানোর লোভ কাজ করছে এটা ভাবাও অন্যায়। তার ক্ষমতা বা সম্মানের লোভ থাকতে পারে, কিন্তু টাকার লোভ আছে তা শুনিনি।

বাংলাদেশে অনেক ভিসি অন্তর এখন ছাত্রলীগের কর্মী পর্যায়ে। তিনি প্রস্তুত আছেন যুবলীগের চেয়ারম্যান হতে। অনেক বেটার না?

তবে ড. মীজান, আপনার উচিত নিজের বয়সের দিকে একটু তাকানো। নেতা হলে আপনার উচিত আওয়ামী লীগের নেতা হওয়া।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত