প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পরিক্ষা মূলক ভাবে পাবজি বন্ধ করা হয়েছিলো, বললেন মোস্তাফা জব্বার

জাফর আহমেদ: দক্ষিণ কোরিয়ার ডেভেলপার প্রতিষ্ঠান ব্লু হোয়েলের তৈরি করা অনলাইন ভিডিও গেম প্লেয়ার আননোনস ব্যাটেলগ্রাউন্ডস (পাবজি) বন্ধ করার একদিন পরেই খুলে দেওয়া হয়েছে।গেমটির মাধ্যমে তরুণেরা সহিংসতায় উদ্বুদ্ধ হতে পারে আশঙ্কায় গেমটি বন্ধ করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

পাবজি কেন নিষিদ্ধ করে একদিন পরেই চালু করা হয়েছে এ বিষয়ে জানতে চাইলে মন্ত্রী বলেন, ভারত, নেপাল, চীনসহ কয়েকটি দেশে গেমটি নিষিদ্ধ করা হয়েছিলো বলেই ‘পরিক্ষা মূলক ভাবে আমরা (বাংলাদেশে) পাবজি বন্ধ করেছিলাম। সেটা আবার খুলে দেওয়া হয়েছে।আমাদের ধারণা ছিল, এটি খুব ক্ষতিকর একটি বিষয়।পরে পর্যালোচনা করে দেখা গেছে ক্ষতিকারক এমন কোনোকিছু নেই।তাই খুলে দেওয়া হয়েছে।সবকিছইু খারাপ ভাবলে ইন্টারনেট বন্ধ করে দিতে হবে। এই গেম অনলাইনে খেলতে পারে, কম্পিউটারেও খেলতে পারে, যে যেভাবে খেলুক না কেন দায়িত্ব ব্যাবহার কারীর, সরকারের নয়। আঠরো বছরে ছেলেমেয়ে কি করবে এই সিদ্ধান্ত তার এটা আমাদের নয়, আমরা সিদ্ধান্ত নিলে তার স্বাধীনতার হস্তক্ষেপ করা হবে। তাই আমরা তার স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করতে পারি না।আঠারো বছরের নিচে ছেলেমেয়েরা খেললে তার দায়িত্ব বাবা-মাকে নিতে হবে।ছেলেমেয়েরা কি করবে তাদের বুঝতে।তবে আমরা পর্ণ, জোয়া, সিকোওরিটি, এই খারাপ সাইডগুলো বন্ধ করে দিয়েছে এবং এর বিরুদ্ধে যে ব্যবস্তা নেয়ার দরকার তা আমরা নিবো।

অভিভাবকরা অভিযোগ করেছিলেন, পাবজি গেম শিক্ষার্থীদের মধ্যে সহিংস মনোভাব তৈরি করছে।একই সঙ্গে পড়াশোনা থেকে শিক্ষার্থীদের মনোযোগ অন্য জায়গায় সরিয়ে নিচ্ছে বলেও অভিযোগ অভিভাবকদের। স্কুল-কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিভাবকদের কাছ থেকে অসংখ্য অভিযোগ পাওয়ার পর গেমটি বাংলাদেশ থেকে খেলা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছিলো।এই নিয়ে মোস্তাফা জাব্বার তার ফেসবুকে একটি স্টাটার্স দিয়েছিলেন।

উল্লেখ্য, সাম্প্রতিক সময়ে ভারত, নেপাল, চীনসহ কয়েকটি দেশে পাবজি গেমটি নিষিদ্ধ করা হয়েছে।২০১৭ সালে চালুহওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী ১০ কোটির বেশিবার ডাউনলোড করা হয়েছে এই গেম। সম্পাদনা : সারোয়ার

সর্বাধিক পঠিত