প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বউ ভাগিয়ে নেয়ায় বন্ধুর কাছ থেকে ধন্যবাদ পেলেন ইকার্দি

আক্তারুজ্জামান : এরকম ঘটনা এর আগে ঘটেছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখতে হবে। নিজের বউ ভাগিয়ে নেয়া ব্যক্তিকেই ধন্যবাদ দিলেন! মাউরো ইকার্দির বর্তমান স্ত্রী ওয়ান্ডা নারা পূর্বে ছিলেন ম্যাক্সি লোপেজের সহধর্মিনী। ওয়ান্ডার প্রেমে পড়ে তাকে নিয়ে পালিয়েছিলেন ইকার্দি। এরপর লোপেজের সঙ্গে সর্ম্পর্কে চিড় ধরে পিএসজির এই ফরোয়ার্ডের। তবে বহুদিন পর ওই ঘটনায় ইকার্দিকে ক্ষমা করে দিলেন লোপেজ। শুধু তাই নয়, ওয়ান্ডা নারার সঙ্গে সম্পর্ক শেষ করতে ভূমিকা রাখায় ধন্যবাদও দিয়েছেন ইকার্দিকে! খবর : স্পোর্টসবিবল।

বউ ভাগিয়ে নেয়ার জন্য ইকার্দিকে ধন্যবাদ দিয়ে লোপেজ ইনস্টাগ্রামে লেখেন, ‘আমি শুধু মাউরোকে ক্ষমাই করিনি, ডব্লুকে (ওয়ান্ডা) নিয়ে যাওয়ার জন্য তাকে ধন্যবাদও দিচ্ছি।’

তবে, ওয়ান্ডাও এই খোঁচার পাল্টা জবাব দিয়েছেন। নিজের ইনস্টাগ্রামে লোপেজকে লিখেছেন, ‘সম্মান হলো টাকার মতো। আপনি চাইতে পারেন, কিন্তু সেটা অর্জন করাই শ্রেয়।’

২০০৮ সালে ওয়ান্ডা নারাকে বিয়ে করেন আর্জেন্টাইন ফুটবলার লোপেজ। ওই সংসারে তিনটি সন্তানও আছে তাদের। আর সেই ঘরে ঝড় তোলেন আরেক ফরোয়ার্ড মাউরো ইকার্দি। ২০১২ সালে সাম্পদোরিয়াতে যোগ দেন ইকার্দি। সেখানে ইকার্দি ও লোপেজের মধ্যে বন্ধুত্ব হয়। তবে মৌসুম শেষ না হতেই তা শেষ হয়ে যায়। কারণ ততদিনে লোপেজকে ছেড়ে যে নিঃসঙ্গ ইকার্দির প্রেমে মজেন তিন সন্তানের জননী ওয়ান্ডা। লোপেজকে ছেড়ে ৬ বছরের ছোট ইকার্দির সঙ্গে সংসার পাতেন ওয়ান্ডা।

এ সম্পর্কের জেরে অনেক ভুগতেও হয়েছে ইকার্দিকে। বিয়ের পর ওয়ান্ডাকে নিজের এজেন্ট হিসেবে নিয়োগ দেন ইকার্দি। এরপর থেকেই ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলানের সঙ্গে দ্বন্দ্ব শুরু হয় আর্জেন্টাইন এই ফরোয়ার্ডের। এরপর সেখান থেকে চলতি মৌসুমের শুরুতে যোগ দেন ফরাসি ক্লাব প্যারিস সেইন্ট জার্মেইতে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত