প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অবৈধ বাসিন্দাদের জন্য সব রাজ্যে ডিটেনশন ক্যাম্প বানাচ্ছে ভারত

খালিদ আহমেদ : সারা দেশে এনআরসি (নাগরিক তালিকা) চালু করার ইঙ্গিত দিয়ে ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানিয়েছেন, রাজ্যে রাজ্যে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরির কাজ এগিয়ে রাখা হচ্ছে। নিউজ১৮-র সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন,  সরকার গোটা দেশে এনআরসি চালু করার জন্য আগাম প্রস্তুতি নিচ্ছে। তিনি আরও জানিয়েছেন, অবৈধ অনুপ্রবেশকারীদের চিহ্নিত করে নাগরিকত্ব খারিজ করার প্রক্রিয়াটা সম্পন্ন করার দায়িত্ব ফরেনারস ট্রাইব্যুনালের। কিন্তু তার পরের পর্বটার জন্য প্রস্তুতি প্রক্রিয়াটা সবে শুরু হয়েছে। মানবজমিন

আসামে এনআরসির চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশিত হওয়ার আগেই অনেকের নাগরিকত্বকে ‘সন্দেহজনক’ আখ্যা দিয়ে তাদের ‘ডি-ভোটার’ করে দেয়া হয়েছিলো। অনেককেই পাঠিয়ে দেয়া হয়েছিলো ডিটেনশন ক্যাম্পে। আসামে বিভিন্ন জেলায় জেলের মধ্যেই ৬টি ডিটেনশন সেন্টার চালু করে প্রায় হাজার খানেক মানুষকে আটকে রাখা হয়েছে। এ বার গোয়ালপাড়ায় প্রায় তিনহাজার বিদেশিকে রাখার জন্য আলাদা জমি চিহ্নিত করে সেখানে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি শুরু হয়েছে।

এদিকে, বিজেপি শাসিত কর্নাটক এবং মহারাষ্ট্রেও তৈরি হচ্ছে ডিটেনশন ক্যাম্প। কর্নাটকে ডিটেনশন ক্যাম্প তৈরি হচ্ছে বেঙ্গালুরু থেকে ৪০ কিলোমিটার দূরে সোন্ডেকোপ্পায়। সে রাজ্যের প্রশাসন যদিও ওই পরিকাঠামোর বিষয়ে বলার সময়ে ‘ডিটেনশন ক্যাম্প’ শব্দটি ব্যবহার করছে না। বলা হচ্ছে ‘গতিবিধি নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্র’ (মুভমেন্ট রেস্ট্রিকশন সেন্টার)। আর মহারাষ্ট্রের নভি মুম্বইতে যে ডিটেনশন সেন্টার তৈরির কাজ শুরু হয়েছে, সে বিষয়ে রাজ্য প্রশাসন সতর্কতার সঙ্গে জানিয়েছে, বেআইনি পাসপোর্ট মামলায় অভিযুক্তদের ওখানে রাখা হবে।

অমিত শাহ বুঝিয়ে দিয়েছেন, এনআরসি নিয়ে পিছু হঠার কথা একেবারেই ভাবছে না কেন্দ্রীয় সরকার।

কেএ/এসবি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত