প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাকিস্তানের অধিনায়কত্ব থেকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে সরফরাজকে

স্পোর্টস ডেস্ক : অবশেষে অধিনায়কত্ব হারালেন পাকিস্তানের উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান সরফরাজ আহমেদ। বিশ্বকাপে নকআউটপর্বে না উঠায় সরফরাজকে নেতৃত্বে থেকে সরিয়ে দেয়ার দাবি উঠেছিলো। কিন্তু তারপরও তাকে সুযোগ দিয়েছিলো পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। সেই সুযোগ কাজে লাগাতে পারেননি। অবশেষে তাকে অধিনয়াকত্বে বাদ দিয়েছে পিসিবি।

শুক্রবার পিসিবির সরফরাজকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানোর বিষয়টি জানিয়েছে। গত কয়েকদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিলো, সরফরাজকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানো হতে পারে অথবা তিনি নিজেই পদত্যাগ করতে পারেন।

সরফরাজ ২০১৬ সালে টি-টোয়েন্টি এবং ২০১৭ সালে টেস্ট ও ওয়ানডে তিন ফরম্যাটেই পাকিস্তানের অধিনায়ক নির্বাচিত হন। তার অধীনে দল জিতেছে আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি, উঠেছে টি-টোয়েন্টি র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষস্থানে। তবে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজে সাম্প্রতিক ব্যর্থতা, বিশ্বকাপে দলীয় ব্যর্থতা প্রভৃতি ইস্যুতে তার নেতৃত্বগুণ উঠেছিলো প্রশ্নের মুখে।

এরই ধারাবাহিকতায় সাবেক ক্রিকেটারদের অনেকেই সরফরাজকে অধিনায়কত্ব থেকে সরানোর দাবি তুলেছিলেন। পিসিবির অনেক ঊর্ধ্বতনও সরফরাজের পক্ষে ছিলেন না। শেষমেশ তাই হারাতে হয়েছে পদটাকেই।

সরফরাজ শুধু অধিনায়কত্বই হারাননি, বাদ পড়েছেন দল থেকেও। আসন্ন অস্ট্রেলিয়া সফরে তিনি দলের সঙ্গী হতে পারছেন না। অস্ট্রেলিয়া সফরে স্বাগতিকদের বিপক্ষে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ খেলবে পাকিস্তান। এরপর মাঠে গড়াবে টেস্ট সিরিজ, যা দিয়ে শুরু হবে আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের পাকিস্তানের যাত্রা।

এই দুই সিরিজে দলকে নেতৃত্ব দেবেন বাবর আজম। বাবরকে স্থায়ী অধিনায়ক করার বিষয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো কিছু জানানো না হলেও তিনিই যে সরফরাজের উত্তরসূরী হিসেবে আগামী দিনগুলোতে পাকিস্তান জাতীয় দলকে দেখভাল করবেন, তা এক প্রকার নিশ্চিতই বলা যায়। আগামী বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপেও দলকে নেতৃত্ব দিবেন বাবর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত