প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

খুলনায় মদ পানে নয় জনের মৃত্যু, রহস্য উদঘাটন কর‌লো মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তর

সুজন কৈরী : সনাতন ধর্মাবলম্বী‌দের প্রধান ধর্মীয় উৎসব দুর্গাপূজায় খুলনা মহানগরী ও রূপসা উপজেলায় মদ পানে নয়জনের মৃত্যুর কারণ উদঘাটন করেছে মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের (ডিএন‌সি) খুলনা ‌‌জেলা কার্যালয়। সেইস‌ঙ্গে ঘটনায় জড়িত অমল দাম (২৬) নামের একজন‌কে আটকও করা হ‌য়ে‌ছে। ত‌বে ঘটনার মূলহোতা ইলিয়াস মুন্সী (৩২) পলাতক র‌য়ে‌ছেন। এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার খুলনা সদর থানায় দুইজনের নাম উল্লেখ করে মামলা হয়েছে। ওই মামলায় গ্রেপ্তার দে‌খিয়ে আদাল‌তে পাঠা‌নো হ‌য়ে অমল স্বীকা‌রো‌ক্তিমূলক জবানবন্দী দি‌য়ে‌ছেন। প‌রে আদালত তা‌কে কারাগা‌রে পাঠা‌নোর আ‌দেশ‌ দেন।

এর আ‌গে বুধবার অমল‌কে আটক করা হয়। এরপর তি‌নি প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে ডিএন‌সির কর্মকর্তা‌দের কা‌ছে স্বীকার করেছেন, মৃত‌দের ম‌ধ্যে পরিমল দাস, দীপ্ত দাস ও ইন্দ্রানী বিশ্বাসের কা‌ছে গত ৭ অক্টোবর তি‌নি মদ বি‌ক্রি ক‌রে‌ছি‌লেন। ইলিয়াস মুন্সীর কাছ থেকে এনে তি‌নি সরবরাহ করেছেন। তার নিজ দোকানে বসে ইলিয়াসের কাছ থে‌কে মোবাইল ফোনের মাধ্য‌মে ৪ বোতল অবৈধ বিদেশী মদ কে‌নেন।

অমল দাস আ‌রো জানান, ইলিয়াস মুন্সী খুলনাসহ বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ বিদেশী মদের মূল যোগানদাতা। ফোনে অর্ডার নি‌য়ে মাধ্যমে তি‌নি বিদেশী মদ ক্রেতাদের কা‌ছে সরবরাহ করেন।

ডিএন‌সির খুলনা ‌‌জেলা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মো. রাশেদুজ্জামান বলেন, মদ পানে মৃত্যুর ঘটনায় কারন উদঘাটনের জন্য বিভিন্ন স্থা‌নে অভিযান চালানো হয়। রূপসায় মদ পানে যারা মারা গেছেন, তাদের প্র‌ত্যে‌কের বাসায় গি‌য়ে জ্ঞিাসাবাদ করা হয়। মৃত‌দের পরিবার, স্বজন ও বন্ধুদের কাছ থেকে জানা যায় ওই মদের যোগানদাতা অমল দাস। এরপর তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। ঘটনার মূল অ‌ভিযুক্ত ই‌লিয়াস পলাতক র‌য়ে‌ছেন। তা‌কে গ্রেপ্তা‌রের জন্য অ‌ভিযান চল‌ছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত