প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তুহিন হত্যা : আমরা ভয়াবহ এক অসভ্য, বর্বর জাতিতে পরিণত হয়েছি

 

শরিফুল হাসান : পুলিশ বলছে, বাবার সঙ্গে ঘুমিয়ে ছিলো শিশু তুহিন। মধ্যরাতে তাকে কোলে করে ঘরের বাইরে নিয়ে যায় বাবা। এ সময় কোলে ঘুমিয়েই ছিলো তুহিন। কোলের মধ্যেই তাকে ধারালো ছুরি দিয়ে জবাই করে হত্যা করে বাবা, চাচা ও এক চাচাতো ভাই। এর পরের বর্ণনা আর দিতে পারবো না। বলেন তো মানসিকভাবে অসুস্থ না হলে কেউ এগুলো করে? কেন লোকটা এগুলো করেছে? পুলিশ বলছে, প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে। বলেন তো মানসিকভাবে অসুস্থ না হলে কেউ প্রতিপক্ষকে ফাঁসাতে নিজের সন্তানকে হত্যা করে? শুধু বাসির একা নয়, বাসিরের মতো মানসিকভাবে অসুস্থ এই পুরো জাতি।আবারও বলছি আমরা ভয়াবহ এক অসভ্য বর্বর জাতিতে পরিণত হয়েছি। ব্যতিক্রম বাদ দিলে এই পুরো জাতি, আপনি আমি আমরা প্রত্যেকে অসুস্থ।

কিন্তু আমরা কেউ বুঝতে পারছি না। কাজেই দুনিয়ার সব মনোচিকৎসককে নিয়ে আসা হোক এই দেশে। আসুন আমরা সবাই মানসিক চিকিৎসকের কাছে যাই। নিজেদের মানসিক অবস্থার স্কেল দেখি। সব কিছু বাদ দিয়ে আগে নিজেদের সুস্থ করি। আমরা প্রত্যেকে সুস্থ না হলে এই জাতির জন্য ভয়াবহ বিপদ। আবারও বলছি দারিদ্র্য নয়, অভাব নয়, মানসিক সমস্যাই এই জাতির প্রধান সমস্যা। ভেবে দেখেন তো, মানসিক অসুস্থ না হলে সবসময় আরেকজনের গীবত, পরশ্রীকাতরতায় মেতে থাকে একটা জাতি। মানসিক অসুস্থ না হলে দুর্নীতি, লুটপাট করে নিজেরা নিজেদের ধ্বংস করি। মানসিক অসুস্থ না হলে আবরারকে এভাবে মারে? মানসিক অসুস্থ না হলে আমরা সব দেখেও চুপচাপ থাকি? মনে রাখবেন, এভাবে চললে শুধু গীবত নয়, দেখবেন একদিন আমরা নিজেরাই ধ্বংস করে উল্লাস প্রকাশ করবো। কাজেই আমাদের সবার মানসিক চিকিৎসা করানো হোক। স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় কর্মক্ষেত্র অফিস-আদালত সর্বত্র আমাদের মানসিক সুস্থতা আর মূল্যবোধ শেখানো হোক। নয়তো আমাদের ধ্বংস অনিবার্য। ফেসবুক থেকে

সর্বাধিক পঠিত