প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানালেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা, আজ গণশপথ

খালিদ আহমেদ : মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলেন বুয়েট শিক্ষার্থীরা বলেন, প্রধানমন্ত্রী বিশেষভাবে তৎপর ছিলেন বলে দ্রুত এ হত্যাকাণ্ডের তদন্তে অগ্রগতি হয়েছে। একই সাথে আইনপ্রয়োগকারী সংস্থাসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে ধন্যবাদ জানান শিক্ষার্থীরা।

শিক্ষার্থীরা আরও জানান, রাজপথে আমাদের অবস্থানকে দীর্ঘায়িত করে এই আন্দোলনকে আমরা ভিন্নখাতে প্রবাহিত করতে চাই না। বুয়েট প্রশাসনের চলমান তদন্ত প্রক্রিয়া এবং দৃশ্যমান অগ্রগতি সাধনের মাধ্যমে যে সদিচ্ছা ইতিমধ্যে দেখিয়েছেন, আমরা সেই সদিচ্ছার প্রতি পূর্ণাঙ্গ শ্রদ্ধা রেখে আজ থেকে আন্দোলন স্থগিতের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

আজ বুয়েটে সাধারণ শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা মিলে এক গণ-শপথে অংশ নিবো। এর মাধ্যমে ক্যাম্পাস থেকে সন্ত্রাস ও সাম্প্রদায়িক অপশক্তিকে রুখে দাঁড়ানোর জন্য প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হবো।

তারা বলেন, আন্দোলনের ইতি টানলেও আমরা অবশ্যই সার্বক্ষণিকভাবে পর্যবেক্ষণ করতে থাকবো। আমাদের দাবিগুলো প্রশাসন কার্যকর করছে কি-না। এবং আইনপ্রয়োগকারী সংস্থা চার্জশিট দাখিলের পর সেটার ভিত্তিতে অপরাধীদের একাডেমিকভাবে স্থায়ী বহিষ্কার হওয়ার আগ পর্যন্ত বুয়েট সাধারণ শিক্ষার্থীরা কোনো রকম একাডেমিক কার্যক্রমে অংশ নেবে না। আমরা খুনিদের সাথে একাডেমি কার্যক্রম শেয়ার করতে পারবো না।

বুয়েট শিক্ষার্থীরা জানান,

তারা জানায়, ইতোমধ্যে বুয়েট প্রশাসনের তৎপরতা আমরা লক্ষ্য করেছি। জড়িতদের সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে। তদন্তের মাধ্যমে তাদের স্থায়ী বহিষ্কার করার আশ্বাস পাওয়া গেছে। আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার রিপোর্টে যদি নতুন করে কারো নাম ওঠে আসে, তাকেও স্থায়ী বহিষ্কার করা হবে। ফাহাদের পরিবারকে অর্থনৈতিকভাবে সহযোগিতা করা হবে বলে আমরা জানতে পেরেছি।

ইতিমধ্যে বুয়েটে ছাত্ররাজনীতি নিষিদ্ধ করা হয়েছে, হলে মধ্যে থাকা রাজনৈতিক কক্ষগুলো সিলগালা করা হয়েছে। এছাড়াও হলে সিসিটিভি স্থাপন করা হয়েছে।  এটা মনিটরিং জন্যে প্রশাসনিক পদ তৈরি দাবি জানাচ্ছি।

কেএ/এসবি

সর্বাধিক পঠিত