প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দিরাইয়ে শিশুটিকে যারা নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছে তাদের হত্যার ধরন বলছে, তারা প্রতিশোধ নিতে চেয়েছে

শাকিল আহমেদ : হত্যাই যে সর্বোচ্চ শাস্তি; সর্বোচ্চ প্রতিশোধ… এই ধারণা বোধহয় রাষ্ট্রের আইনেই পাল্টানোর সময় হয়ে গেছে। তাহলে হয়তো প্রতিশোধ পরায়ন হয়ে মেরে ফেলা এবং সেটিই যে সর্বোচ্চ শাস্তি দিয়ে দেয়া হলো সেই অমানুষত্য থেকে মুক্তির পথ তৈরি হতে পারে! দিরাইয়ে শিশুটিকে যারা নিষ্ঠুরভাবে মেরেছে তাদের হত্যার ধরণ বলছে তারা প্রতিশোধ নিতে চেয়েছে। এটুকু বললে যদিও ভুল হবে। এই খুনিরা আসলে অমানুষ এবং অসুস্থ। কিন্তু এদেরও আসলে এই সমাজই তৈরি করেছে। আরও গোড়ার উপলব্ধি হলো আসল অসুখের নাম-ঘৃণা। এটি কমিয়ে রাখতে উন্নত সমাজে নানা কর্মসূচি সংগঠন আছে; আমার দেশে তা একেবারেই অনুপস্থিত।

জাতির সেরা সন্তানদের যারা হত্যা করেছে তাদের ফাঁসি কার্যকর করা ছিলো সময়ের প্রয়োজন; তাদের অপরাধের ফল পুরো দেশকে ভুগতে হয়েছে। তবে একটা লম্বা সময়ের পর সুদীর্ঘ মেয়াদী জাতিগত পরিবারগত এবং ব্যাক্তিগত বিদ্বেষ ঘৃনা থেকে একটা সময়ে জাতিকে দেশকে ব্যাক্তিকে বের হয়ে আসতে হয়। যারা না বের হয়ে আসতে পারে তারা নতুন নতুন যুদ্ধে জড়ায়; তার ফল কেবলই নতুন নতুন ধ্বংস। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত