প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পেট্রল খাতে ১১ প্রতিষ্ঠানের কাছে জিম্মি সরকার, মান না বাড়ালে বন্ধের হুঁশিয়ার প্রতিমন্ত্রীর

হ্যাপি আক্তার : পরিশোধিত পেট্রল ব্যবসায় ১১ প্রতিষ্ঠান নিম্নমানের পেট্রল দিচ্ছে জেনেও কিছুই করতে পারেনি কর্তৃপক্ষ। জ্বালানি প্রতিমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি, আর সহ্য করা হবে না, প্রয়োজন হলে এসব প্রতিষ্ঠান বন্ধ করে দেয়া হবে। ইনডিপেনডেন্ট টেলিভিশন

গেল ২০ বছরে জ্বালানি তেল পরিশোধনে দেশে গড়ে উঠেছে ১৩টি বেসরকারি রিফাইনারি। এগুলোর মধ্যে ১১টি রিফাইনারিতে উৎপাদন হয় পেট্রল বাকি দুইটিতে অকটেন। পেট্রল উৎপাদনকারী রিফাইনারিগুলোর বিরুদ্ধে নিম্নমানের পণ্য উৎপাদন, অবৈধ বিক্রিসহ নানা অনিয়মের অভিযোগ দীর্ঘদিনের।

গবেষকেরা বলছেন, এই কোম্পানিগুলো যথাযথ নির্মাণ প্রক্রিয়া অনুসরণ করেনি। এছাড়া, সামান্য বিনিয়োগ করে বিগত বছরগুলোতে বড় অংকের মুনাফা হাতিয়ে নিয়েছে তারা। এক্ষেত্রে মান উন্নয়নের বিকল্প দেখছেন না বিশ্লেষকরা। কিন্তু ব্যবসায়ীরা তা করতে নারাজ।

মান না বাড়ালে কোম্পানিগুলোর বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানালেন জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ।
দেশের গ্যাসক্ষেত্রগুলো থেকে উঠে আসে কনডেনসেট। পেট্রোবাংলা থেকে এসব কনডেনসেট নিয়ে পরিশোধন করে উৎপাদন হয় পেট্রল, ডিজেল ও তারপিন।

উৎপাদিত পণ্য বিপিসির কাছে বিক্রি করতে বাধ্য বেসরকারি রিফাইনারি কোম্পানিগুলো। অভিযোগ আছে রিফাইনারি প্লান্টগুলো কনডেনসেট পরিশোধন না করে সরাসরি বিভিন্ন পেট্রল পাম্পে বিক্রি করে দেয়। সম্পাদনা : রেজাউল আহ্সান

সর্বাধিক পঠিত