প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেদ কমাতে সাহায্য করবে যেসব পানীয়

সানমুন নিশাত : শরীরের মেদ কমাতে আমরা বিভিন্ন সময় নানা উপাদান ব্যবহার করি। দ্রুত সমাধান পেতে আমরা নিজ হাতেই বানিয়ে ফেলতে পারি সুস্বাদু ডিটক্স ওয়াটার। মেদ ঝরিয়ে এই পানীয় যেমন শরীর সুস্থ রাখবে, তেমনই তরতাজা থাকবে মন। – দেশ রূপান্তর

ডিটক্স ওয়াটারের কয়েক ধরনের রেসিপির বর্ণনা নিচে দেয়া হলো , যা আপনি বানিয়ে ফেলতে পারবেন বাড়িতে থাকা উপাদান দিয়েই-
১) আপেল ও দারুচিনি- একটি আপেল নিয়ে তাতে থাকা সব বীজ ফেলে দিয়ে কুচি কুচি করে কেটে নিন। আধা লিটার পানিতে আপেলকুচিগুলো মিশিয়ে নিয়ে তাতে এক টুকরো দারুচিনি মিশিয়ে নিন। ভালোভাবে ঝাঁকিয়ে বোতলটি ফ্রিজে রেখে দিন। এই পানি ছয় ঘণ্টা পর্যন্ত পান করতে পারবেন।

২) লেবু, কমলা ও বাদাম – এই ডিটক্স ওয়াটার তৈরি করবেন কয়েক টুকরো লেবু, কয়েক কোয়া কমলা আর দুই থেকে তিন পিস বাদাম দিয়ে। ফলগুলো স্লাইস করে কেটে নিয়ে পানির সঙ্গে মিশিয়ে নিন। এভাবে খেতে না চাইলে খোসা ছাড়িয়ে ব্লেন্ড করে নিতে পারেন। এতে শসা কুচি মিশিয়েও খেতে পারেন স্বাদে ভিন্নতা আনতে চাইলে।

৩) কমলা ও কালো আঙুর – পরিমাণমতো পানিতে খোসা ছাড়ানো একটি কমলার সঙ্গে কয়েকটি কালো আঙুর মিশিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। পানির সুন্দর একটি বর্ণ ধারণ করবে। আপনি চাইলে না ছেঁকেও এই পানি পান করতে পারেন।

৪) লেবু ও স্ট্রবেরি – আধা লিটার পানির সঙ্গে ১৫টি স্ট্রবেরি ও একটি লেবু কুচি করে ব্লেন্ড করে নিন। স্বাদের জন্য পুদিনা পাতাও যোগ করতে পারেন। এই পানীয় শরীরকে সুস্থ রাখার সঙ্গে সঙ্গে মনে সতেজ ভাবও বজায় রাখবে। অতিরিক্ত ক্ষুধা লাগার ভাবও কমাবে ।

৫) তরমুজ ও স্ট্রবেরি – ডিটক্স ওয়াটার হিসেবে পরিচিত আরেকটি পানীয় হচ্ছে তরমুজ আর স্ট্রবেরির পানীয়। কয়েক টুকরো তরমুজের সঙ্গে ৮ থেকে ১০টি স্ট্রবেরি মিশিয়ে বানিয়ে ফেলুন পানীয়। অল্প বিট লবণ আর পুদিনা পাতার ঘ্রাণ এতে যুক্ত করতে পারেন। ডিটক্স ওয়াটার পান করা হয় শরীরের সুস্থতার জন্য। তাই এতে বাড়তি চিনি যুক্ত করার প্রয়োজন নেই। কারণ চিনিতে থাকে কার্বোহাইড্রেট, যা শরীরে মেদ জমার অন্যতম কারণ।

৬ ) ডার্ক চকলেট শেক – অনেকেই মনে করেন ডার্ক চকলেট ওজন বাড়ায় কিন্ত না বরং ওজন কমাতে সহায়তা করে থাকে। প্রতিদিন একটু ডার্ক চকলেট খাওয়া মেদ কমানোর পাশাপাশি আরও নানা শারীরিক সমস্যা দূরে রাখে।
কীভাবে বানাবেন ডার্ক চকলেট শেক

৪টি বরফের টুকরো,
আধা কাপ দুধ,
অর্ধেকটা পাকা কলা,
২ টেবিল চামচ মিষ্টি ছাড়া কোকো পাউডার ও
২ চা চামচ মধু একসাথে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিন। ব্যস, তৈরি আপনার ডার্ক চকলেট শেক।
৭ ) আইসড মিন্ট টী –
পুদিনা পেটের মেদ কমাতে অনেক ভালো একটি উপাদান, এছাড়াও পুদিনার অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট আরও নানা ধরণের শারীরিক সমস্যা দূরে করতে সহায়তা করে।
৩-৪ কাপ পানিতে কয়েক দানা চা পাতা দিয়ে ১ মুঠো পুদিনা পাতা ও ১ ইঞ্চি আদা ছেঁচে দিয়ে জ্বাল করতে থাকুন। ভালো করে জ্বাল হয়ে গেলে নামিয়ে ঠাণ্ডা করে নিন। চাইলে কিছুটা পানীয় দিয়ে বরফ তৈরি করে নিতে পারেন। এরপর একটি গ্লাসে মিন্ট টী ঢেলে সাথে এরই তৈরি বরফ বা সাধারণ বরফ দিয়ে পান করুন। মিষ্টি চাইলে মিশিয়ে নিতে পারেন মধু। সাথে মিশিয়ে নিতে পারেন কয়েক ফোঁটা লেবুর রস।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত