প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পাঞ্জাবের আকাশে এক সপ্তাহে পরপর তিনবার পাকিস্তানি ড্রোন, বাড়ছে ভারতের উদ্বেগ

সাইফুর রহমান : সর্বশেষ বুধবার সন্ধায় পাঞ্জাবের ফিরোজপুরের আকাশসীমায় একটি ড্রোন প্রত্যক্ষ করে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী(বিএসএফ)। গত তিনদিনে এনিয়ে দ্বিতীয়বার ওই অঞ্চলে পাকিস্তানি ড্রোন উড়তে দেখা গেছে। সংবাদসংস্থা আইএএনএস জানায়, সন্ধা ৭.২০ টার দিকে হাজারসিংহ ওয়ালা গ্রামের আকাশে ওই ড্রোন দেখা যায়। তারপর রাত ১০.১০টার দিকে আবারো ড্রোনটিকে টেন্ডিওয়ালা গ্রামের দিকে উড়তে দেখা যায়। এর আগে সোমবার রাতে তিনবার ড্রোন উড়তে দেখা গেছে যাদের মধ্যে একটি ড্রোন ভারতের আকাশসীমার এক কিলোমিটারের মধ্যেই উড়ছিল। এর কয়েক ঘন্টা আগে পাকিস্তান সীমান্তের কাছে আরও একটি ড্রোন উড়তে দেখেছে বিএসএফ। এনডিটিভি

পাঞ্জাবের জেলা পুলিশ সুপার সুখবিন্দর সিং জানান, ‘গত দু’দিন ধরে পাকিস্তানের সঙ্গে আমাদের সীমান্ত এলাকায় একটি ড্রোন উড়ে বেড়াতে দেখি। এবিষয়ে তদন্তের জন্য আমরা দল গঠন করেছি এবং বিএসএফের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছি।’ গত মাসে ১০ দিনে ড্রোন থেকে আটটি জায়গায় একে-৪৭ রাইফেল, গ্রেনেড এবং স্যাটেলাইট ফোন ফেলা হয়েছিল বলেও জানায় পাঞ্জাব পুলিশ। ড্রোনগুলির প্রত্যেকটিতে পাঁচ কেজি পর্যন্ত ওজন বহন করা সম্ভব। পাকিস্তানের কাউন্টার টেরোরিজম ইন্টেলিজেন্সের এক উর্ধতন কর্মকর্তা জানান, যান্ত্রিক ত্রুটির কারণে আটারি সীমান্ত সংলগ্ন একটি গ্রামের এক ধানক্ষেত থেকে বিধ্বস্ত হওয়া একটি ড্রোন উদ্ধার করেন তারা। জম্মু-কাশ্মীরের বিদ্রোহীদের জন্যই পাকিস্তান ড্রোন থেকে অস্ত্রগুলো ফেলে যাচ্ছে বলে সন্দেহ করছেন ভারতীয় গোয়েন্দারা।

জম্মু-কাশ্মীর নিয়ে ভারতের সাম্প্রতিক পদক্ষেপের বিষয়টি জাতিসংঘ এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের কাছে তুলে ধরে ব্যবস্থা নেয়ার উদ্যোগ নিয়েও ব্যর্থ হয় পাকিস্তান। ভারতীয় গোয়েন্দা সংস্থা জানায়, পাকিস্তান নিয়ন্ত্রণ রেখা বরাবর জঙ্গি ঘাঁটিগুলো পুনরায় সক্রিয় করছে এবং পাশাপাশি জঙ্গি অনুপ্রবেশ ঘটানোরও চেষ্টা করছে। ভারতীয় সেনাপ্রধান বিপিন রাওয়াত অভিযোগ করেন, গত ফেব্রুয়ারিতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর গুঁড়িয়ে দেয়া বালাকোট জঙ্গি ঘাঁটিটিও আবার সক্রিয় করার চেষ্টা করছে পাকিস্তান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত