প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দক্ষিণ এশিয়ায় প্রবৃদ্ধি অর্জনে বাংলাদেশ এক নম্বর, বললেন অর্থমন্ত্রী

সাইদ রিপন : অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে দেশ সঠিক পথে এগিয়ে যাচ্ছে।বিশ্বব্যাংক-আইএমএফসহ অনেক দেশ বলছে বাংলাদেশকে অনুসরণ করো। বর্তমানে দক্ষিণ এশিয়ায় প্রবৃদ্ধি অর্জনে বাংলাদেশ এক নম্বর অবস্থানে আছে। আমরা ২০৪১ সালে প্রথম শ্রেণির ২০টি উন্নয়নশীল দেশের কাতারে থাকবো। যদিও ঋণ নেয়ার দিক থেকে পিছিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ।

শনিবার শাহাবাগে জাতীয় জাদুঘরের মিলনায়াতনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ৭৩তম জন্মদিন উপলক্ষে এক আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, প্রত্যেক পরিবারে একজনের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী কাজ করে যাচ্ছেন।দেশ যেভাবে এগিয়ে যাচ্ছে ২০২৭ সালে বাংলাদেশে বিশ্বের মধ্যে ২৬ তম অর্থনীতির দেশ হবে। ২০৩০ সালে প্রত্যেক পরিবারে একজন করে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে। দারিদ্রতা শূন্যের কোঠায় নেমে আসবে। বর্তমানে দেশে ২১ ভাগ দারিদ্রতা রয়েছে। ২০৩০ সালের মধ্যে মালয়েশিয়া-অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডকে পেছনে ফেলবে বাংলাদেশ। প্রধানমন্ত্রীর হাত ধরে বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন করতে পারবো বলে আমরা বিশ্বাস করি। এই অর্জনের ভিত করে দিয়ে গেছেন বঙ্গবন্ধু।

তিনি বলেন, আমাদের অর্জন ধরে রাখতে তরুণ সমাজকে মন দিয়ে লেখা পড়া করতে হবে। তোমরা আমাকে অনুসরণ করতে পারেন। বেতন দিতে না পারায় এসএসসি পরীক্ষায় আমার তিন বার নাম কাটা গেছে।গ্রামের মানুষ আমার ফি দিয়েছেন। আমার গ্রামের হাবিবুল্লাহ নামক এক ব্যক্তি আমার বেতন দিয়েছেন।আমি লজিংয়ে থেকে লেখা পড়া করেছি, টিউশনি করিয়েছি।আমি টিউশনি করে ও লজিংয়ে থেকে লেখা পড়া করে যদি অর্থমন্ত্রী হতে পারি তবে আমার সামনে যারা আছো তোমরাও একদিন দেশের অর্থমন্ত্রী হতে পারবা।

মন্ত্রী বলেন, জাতির পিতার স্বপ্ন বাস্তবায়নে প্রধানমন্ত্রী আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি দেয়ার জন্য কাজ করে যাচ্ছেন। প্রধানমন্ত্রী আজকে বিশ্ব নেতা হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের ডোনাল্ট ট্রাম্প, ভারতের নরেন্দ মোদি ও জাপানের প্রধানমন্ত্রী সিনজো অ্যাবেকে যেভাবে মূল্যায়ন করা হয়, প্রধানমন্ত্রীকেও একইভাবে মূল্যায়ন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী দেশে না আসলে আমরা হারিয়ে যেতাম, এই দেশের মানুষ হারিয়ে যেতো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত