প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পুলিশ স্টেশনে তিন মুসলিম তরুণীকে রাতভর নির্যাতন আসামে, নির্যাতনে গর্ভপাত ঘটেছে অন্তস্বত্তা এক নারীর

আসিফুজ্জামান পৃথিল : এই ভয়াবহ ঘটনা ঘটেছে দারাং জেলায়। নির্যাতিত ৩ জনই আপন বোন। ৩ বোনকে নগ্ন করে থানায় আটকে রেখে রাতভার নির্যাতন করা হয়। দ্য লজিক্যাল ইন্ডিয়ান

নির্যাতনে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে গর্ববতী নারী সন্তান হারিয়েছেন। ৮ সেপ্টেম্বর এই ঘটনা ঘটলেও সম্প্রতি তা প্রকাশিত হয়েছে। নির্যাতনের পর সেই তরুণীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার গর্ভপাতের ঘটনা ঘটে। এই ৩ বোনের নাম মিনুয়ারা বেগম, সানুয়ারা বেগম এবং রুমেলা বেগম। তারা গুয়াহাটির ৬ মাইল এলাকার বাসিন্দা। একটি অপহরণ মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগ তুলে এদের ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। এই ঘটনায় স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন মিনুয়ারা বেগম। তিনি এজন্য বুরহা পুলিশ আউটপোস্টের ওসিকে প্রধান অভিযুক্ত করেন। তবে পুলিশ তার করা মামলা নথিভুক্ত করেনি।

নিজের অভিযোগে মিনুয়ারা জানান, ওসি মহেন্দ্র শর্মা এক নারী কনস্টেবলকে নিয়ে সারারাত তাকে নির্যাতন করেন। ইন্ডিয়া টুডে সেই অভিযোগের উদ্ধতি দিয়ে লিখেছে, ‘আমরা পুলিশের কাছে নির্মমভাবে মার খেয়েছি। তারা আমাদের গোপন স্থানে আঘাত করেছে। আমাদের নিজের অস্ত্রের মুখে নির্যাতন করে সেই পুলিশ কর্মকর্তা। তার বিরুদ্ধে কোনো ধরণের অভিযোগ আনার বিষয়েও আমাদের সে হুমকি দেয়।’ দারাং জেলার পুলিশ সুপার অমৃত ভূঁইয়া জানিয়েছেন এই ঘটনার তদন্তের দায়িত্ব একজন ডিএসপিকে দেয়া হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ