প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

দুর্গন্ধযুক্ত পানি নিয়ে ওয়াসার নিকট আবেদন করেও সারা পাচ্ছে না রাজধানীর শংকরের বাসিন্দারা

শাহীন খন্দকার : রাজধানীর শংকরের বিভিন্ন হাউজিং প্রজেক্টসহ এ্যাপার্টমেন্টগুলোতে ওয়াসার লাইনে পানি থাকলেও নোংরা আর দুর্গন্ধযুক্ত হওয়ায় তা ব্যবহার অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। সরোজমিনে ধানমন্ডির শংকরে ঘুরে বেশ কয়েকটি বাড়ির এমন অবস্থা হওয়ায় পরিবার পরিজন নিয়ে বিপাকে স্থানীয়রা। স্থানীয়দের দাবি, শুধু দৈনন্দিন কাজই ব্যাহত হচ্ছে না পানিবাহিত নানারোগে আক্রান্ত হচ্ছেন অনেকে। তাদের মধ্যে শিশুদের সংখ্যা বেশি।

ময়লা আর দুর্গন্ধযুক্ত পানি নিয়ে চরম সমস্যায় রাজধানীর শংকর এলাকার বাসিন্দারা। ‘নিরিবিলি’ হাউজিংয়ে সুপেয় পানির জন্য হাহাকার প্রায় একমাস ধরে চলমান রয়েছে। স্থানীয়দের দাবি, পানি দূর্গন্ধ দূলীকরণের লক্ষ্যে ওয়াসা বরাবর আবেদন করে ও সারা পাওয়া যাচ্ছে না। উপরন্ত বেশি দামে পানি বিক্রি করছে ঢাকা ওয়াসা।

ভুক্তভোগীরা বলেন, নোংরা পানি দিয়েই কাজ করতে হয় বাধ্য হয়ে। পানি খারাপ হওয়ায় বাসা ছেড়ে একসপ্তাহ ধরে আত্মীয় স্বজনের বাসায় গিয়ে দিন যাপন করছি। স্যুয়ারেজ লাইন এবং পানির লাইন এক হয়ে গেছে বলে এলাকাবাসীর দাবি। অনেকদিন পানি ছিলই না, যখন পানি আসা শুরু হয় তখন শুধু গন্ধ নয় খুব দুর্গন্ধ পানি আসে।

সংকট সমাধানে মিনারেল ওয়াটার বা জারের পানি কেনায় এক দিকে ওয়াসাকে বিল দিতে হচ্ছে অন্যদিকে অধিক মুল্যে পানি ক্রয় করে খাওয়াসহ ঘরগৃস্থলীর কাজ সম্পন্ন করতে হচ্ছে বলে দাবি বাসিন্দাদের। আবার কেউ আলাদা জলাধার বসিয়ে পানি কিনছেন ওয়াসা থেকেই।

আবার কেউ কেউ অফিস থেকে ফেরার পথে প্রতিদিন পানির জার কিনে বাসায় ফিরছেন । বাড়ীর মালিক ফরিদ হোসেন জানান, চারশো টাকার জায়গায় ছয়শো টাকা দিয়ে এক গাড়ি পানি কিনতে হচ্ছে। কারন বাড়ীতে ভাড়াটিয়ারা তো মাস গেলে ভাড়া দিচ্ছেন আমাকে। তাই ভাড়াটিয়াদের আমি কষ্ট দিতে পারি না।

তিনি আরো বলেন, বিষয়টি নিয়ে ওয়াসার অফিসের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের সাথে কথা হয়েছে কিন্তু কোনো কাজ হয়নি বলে জানান ফরিদসহ এলাকাবাসী।

এদিকে ঢাকা ওয়াসার জোনের ৩ এর কার্যালয়ে গিয়ে জানা যায়, কয়েকটি বাসায় পানি সংকটের তথ্য তারা পেয়েছেন। তবে ওয়াসার পানির গাড়ির চালকরা বললেন, অনেক এলাকাতে আমাদের পানি সরবরাহ করতে হয়, রাস্তায় জ্যাম থাকার কারণে অনেক সময়ে কিছু জায়গাতে পানি পৌঁছাতে দেরি হচ্ছে তাদের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ