প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টিএসসি-জাদুঘর-ঢাকা মেডিক্যাল ভেঙে বড় পরিসরে নির্মাণ করা হবে, জানালেন প্রধানমন্ত্রী

সমীরণ রায়: জাতীয় জাদুঘর, পাবলিক লাইব্রেরি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র (টিএসসি) এবং ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ এই চারটি গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা আরও বড় পরিসরে নতুন করে নির্মাণের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় গণভবনে ছাত্রলীগের নতুন ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় ও সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্যের নেতৃত্বে দলটির শীর্ষ নেতাদের সাক্ষাতের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সিদ্ধান্তের কথা জানান। গতকাল শুক্রবার প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব হাসান জাহিদ তুষার এ তথ্য জানান।

নতুন করে এসব স্থাপনা নির্মাণের সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এই স্থাপনাগুলো হবে আন্তর্জাতিক মানসম্পন্ন, আধুনিক সুবিধা সম্বলিত ও নান্দনিক সৌন্দর্যের। এরই মধ্যে পরিকল্পনা ও নকশা প্রণয়ন করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের জন্য টিএসসিকে আরও বড় ও আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্মিলিত করে দেওয়া হবে। শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো, সবাই যেন আরও বেশি খোলামেলা পরিবেশে কাজ করতে পারে। অত্যাধুনিক ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ নির্মাণের কথা জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ ভবন অনেক পুরাতন। সেখানে রোগীর অনেক চাপ। এখানে আধুনিক বিল্ডিং করে দেওয়া হবে, যেন ৪-৫ হাজার রোগীকে এক সঙ্গে সেবা দেওয়া যায়।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, নতুন পরিকল্পনা অনুযায়ী জাতীয় জাদুঘর এবং পাবলিক লাইব্রেরি পুরো এলাকাকে একই বাউন্ডারির মধ্যে নিয়ে আসা হবে। এখানে আরও বড় পরিসরে অত্যাধুনিক সুবিধা সম্পন্ন স্থাপনা নির্মাণ করা হবে।
মেট্রোরেল হবে সর্বাধুনিক প্রযুক্তির, কম্পিউটারাইজড, ইলেকট্রিক ট্রেন, এখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভেতরে মেট্রোরেল হবে সাউন্ডপ্রুফ। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে যারা লেখা-পড়া করবে তারা কোনো শব্দ পাবে না। মেট্রোরেলের রুট আমি নিজে ঠিক করেছি। একইসঙ্গে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় ও হাসপাতাল এবং বারডেম হাসপাতালের রোগীদের কথা চিন্তা করে শাহবাগে একটি স্টেশন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের সুবিধার কথা বিবেচনা করে টিএসটিসতে একটি প্লাটফর্ম রাখা হয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের রাস্তা পারাপারের সুবিধা ও বইমেলার কথা চিন্তা করে বাংলা একাডেমির সামনে একটি বড় আধুনিক আন্ডারপাস করে দেওয়া হবে। সম্পাদনা : ইকবাল খান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ