প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হিলি স্থলবন্দরে বেড়েছে পেঁয়াজের দাম

হিলি প্রতিনিধি : হিলি স্থল বন্দরে পাইকারি বাজারে পেঁয়াজের ঝাঁজ আবারও বেড়েছে। পেঁয়াজের মুল্যবৃদ্ধি রুখতে ও কারসাজি করে কেউ যেন পেঁয়াজের মুল্যবৃদ্ধি করতে না পারে সে ব্যাপারে পেঁয়াজ আমদানিকারকদের নিয়ে বৈঠক করেন উপজেলা প্রশাসন। এতে করেও পেঁয়াজের দাম কমছেনা। এর মধ্যে ২ দিনে ব্যবধানে কেজিতে দাম বেড়েছে ৯ থেকে ১২ টাকা। খোলা বাজারে পেয়াঁজের দাম স্বাভাবিক রাখতে পেয়াঁজ কিনবে টিসিবি। এরই ধারাবাহিকতায় হিলিতে টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে শিডিউল ড্রপ করলেন ৩ টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান। ভারতীয় কৃষিপণ্য মূল্য নির্ধারণকারী সংস্থা “ন্যপেড” গত শুক্রবার হঠাৎ করে পেঁয়াজের রফতানি মূল্য সাড়ে ৩শ ডলার থেকে বাড়িয়ে ৮৫২ মার্কিন ডলার নির্ধারণ করে।

এদিকে গত বুধবার হিলি স্থলবন্দরের পাইকারী বাজারে যে পেঁয়াজ বিক্রি হয়েছে ৪৮ থেকে ৫২ টাকায় কেজি দরে। বৃহস্পতিবার ওই পেঁয়াজই পাইকারী বাজারে বিক্রি হয়েছে প্রতি কেজি ৫৭ থেকে ৬০ টাকা দরে। গেলো রোববার বিভিন্ন ব্যাংকে পুরনো এলসি গুলো পুনরায় এ্যমানমেন্ড এবং নতুন করে এলসি করে পেঁয়াজ আমদানি করছেন ব্যবসায়ীরা। বন্দর সুত্রে জানা গেছে, চলতি সপ্তাহের গত ৬ কর্ম দিবসে ভারতীয় ৮৮ ট্রাকে ১হাজার ৯০৫ মেট্রিক টন পেঁয়াজ আমদানি হয়েছে হিলি স্থলবন্দর দিয়ে। তবে গেলো সপ্তাহে পেঁয়াজ আমদানি হয়েছিলো ২ হাজার ৪২২ মেট্রিক টন।

এদিকে ভারত সরকার পেঁয়াজের রফতানি মূল্য বাড়িয়ে দেয়ার প্রভাব পড়েছে দেশীয় খোলা বাজারে। পেঁয়াজের দাম কমে আসবে এমই কথা ব্যবসায়ীদের।

উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে গত বুধবার দুপুরে উপজেলা পরিষদ সভাকক্ষে হিলি স্থলবন্দরের সকল পেঁয়াজ আমদানিকারকগনে সাথে হাকিমপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তৌহিদুর রহমান (ভার:) বৈঠকে করেন। উপস্থিত ছিলেন উপজেলা চেয়ারম্যান হারুন উর রশীদ, হিলি স্থলবন্দর আমদানি রফতানিকারক গ্রুপের সহ-সভাপতি শহিদ উদ্দিন, সাধারন সম্পাদক মোস্তাফিজুর রহমান, পেঁয়াজ আমদানিকারক সাইফুল ইসলাম, বাবলুর রহমানসহ অনেকে। সভায় পেঁয়াজের মুল্যবৃদ্ধি রুখতে ও কারসাজি করে পেঁয়াজ মজুদ করে কৃতিম সংকট তৈরির মাধ্যমে কেউ যেন পেঁয়াজের দাম বাড়াতে না পারে সেবিষয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়। সেই সাথে দেশের বাজারে পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে বন্দরের ব্যবসায়ীদের বেশি করে পেঁয়াজ আমদানি করার আহবান জানানো হয়।

এদিকে খোলা বাজারে পেয়াঁজের দাম স্বাভাবিক রাখতে দেশের চারটি স্থলবন্দর থেকে আমদানিকারকদের কাছ থেকে পেয়াঁজ কিনবে টিসিবি। এরই ধারাবাহিকতায় হিলিতে টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে শিডিউল ড্রপ করলেন ৩ টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে খান ট্রের্ডাস, সততা বাণিজ্যালয় ও সিপিং লাইন নামে ৩টি প্রতিষ্ঠান শিডিউল ড্রপ করেছেন। রংপুর টিসিবি’র আঞ্চলিক কার্যালয়ের উপ-ঊর্ধতন কর্মকর্তা সুজাউদ্দৌলা সরকার বলেন, দেশের চারটি স্থলবন্দর থেকে এক যোগে দরপত্র আহব্বান করা হয়েছে। যে বন্দরের আমদানিকারকরা কম দামে টিসিবিকে পেয়াঁজ দিতে পারবে তাদের থেকে পেয়াঁজ ক্রয় করা হবে।তিনি আরো জানান,হিলি স্থলবন্দর থেকে ৩ টি আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান শিডিউল ড্রপ করেছেন।আমরা সেগুলো আমাদের ঢাকা অফিসে প্রেরণ করেছি।কোন প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে পেয়াঁজ ক্রয় করা হবে সেটা আমরা পরে জানাতে পারব।এদিকে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানিকারক গ্রæপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন জানান,আমরা সরকারকে কম দামে পেয়াঁজ দিতে শিডিউল ড্রপ করেছি। আশা করছি আমাদের কাছ থেকেই পেয়াঁজ ক্রয় করবে টিসিবি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ