প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার, বললেন প্রধানমন্ত্রী

মহসীন কবির ও হ্যাপি আক্তার : প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে সরকার। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি বিভাগীয় শহরে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে। যারা রাষ্ট্র পরিচালানা করবেন তাদের সেবা দিয়ে মানুষের মন জয় করতে হবে। সেবার এই মানসিকতা না থাকায় কমিউনিটি হাসপাতালগুলো বন্ধ করে দিয়েছিলো বিএনপি-জামায়াত। মানুষের দোরগোড়ায় স্বাস্থ্যসেবা পৌঁছে দিতে কাজ করছে বর্তমান সরকার। পর্যায়ক্রমে প্রতিটি বিভাগীয় শহরে মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় করা হবে। বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) গাজীপুর সিটি করপোরেশনের তেতুইবাড়ি এলাকায় শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব মেমোরিয়াল কেপিজে হাসপাতাল ও নার্সিং কলেজে প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

নার্সিং পেশাকে সবচেয়ে সম্মানের উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, আগে নার্সিং পেশা অবহেলিত ছিলো। কিন্তু আমি মনে করি এই পেশাটাই সবচেয়ে সম্মানের। কারণ অসুস্থ রোগীকে সেবা দিয়ে সুস্থ করে তুলতে নার্সের সেবার কোনো বিকল্প নেই। সেবা প্রদানের কারণেই নার্সিং সম্মানজনক পেশায় পরিণত হয়েছে। পেশাগত মর্যাদার পাশাপাশি বাড়ানোর হয়েছে বেতন-ভাতা।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আগে ডিপ্লোমা নার্সিংয়ের ট্রেনিং দেয়া হতো। কিন্তু আমরা চাকরি ক্ষেত্রে নার্সের মর্যাদা বাড়িয়ে দিয়েছি। দেশে প্রথম নার্স মেডিক্যাল কলেজ স্থাপন করেছি। আমরা এরইমধ্যে ৭টি নার্সিং ইনস্টিটিউটকে নার্সিং কলেজে উন্নতি করেছি এবং ৫ হাজার ১০০ নার্স নিয়োগ দিয়েছি। বর্তমানে দেশে ৩৩ হাজার নার্স কর্মরত আছে বিভিন্ন হাসপাতালে। স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করাই আমাদের লক্ষ্য। এছাড়াও গাজীপুর হাইওয়েতে প্রতিদিন দুর্ঘটনা হয়। তাই এখানে নার্সিং কলেজ তৈরি করেছি।

স্বাস্থ্যসেবা মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেয়ার কথা উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চল থেকে শুরু করে সারা বাংলাদেশে স্বাস্থ্যসেবা নিশ্চিত করার জন্য কমিউনিটি ক্লিনিক গড়ে তুলেছি। এর মধ্যে আমরা ১৮ হাজার কমিউনিটি ক্লিনিক তৈরি করেছি।

তিনি বলেন, নার্সিং কলেজ খুব সফলতার সাথে কাজ করবে বলে আমি মনে করি। আমরা নার্সিং পেশায় নিয়োজিত ব্যক্তিদের বিদেশে ট্রেনিং দিচ্ছি। তাই এখন বাংলাদেশের অনেকে নার্সিং পেশায় আসার জন্য আরো আগ্রহ পাবে।

 

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ