প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পণ্য ক্রয়ে দাম নির্ধারণের তাগিদ দিলেন প্রধানমন্ত্রী

মো. আখতারুজ্জামান : বিভিন্ন প্রকল্পের পণ্যের অতিমাত্রায় দামের বিষয়ে নানা সমালোচনার বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, এ অবস্থান থেকে বেরিয়ে আসতে হবে। এখন থেকে যাতে দাম দর করে পণ্য ক্রয় করা হয়।

মঙ্গলবার রাজধানীর শের-ই-বাংলা নগরের পরিকল্পনা কমিশনে প্রধানমন্ত্রী ও একনেক সভাপতি শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় এ তাগিদ দেন। সভা শেষে এনইসি সম্মেলন কক্ষে সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, সরকার অহেতুক সমালোচিত হতে চায় না। আমরা পরিকল্পনা কমিশনের সদস্য এবং বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের সচিবদের পণ্যের মূল্য নির্ধারণে সাবধান হতে নির্দেশ দিয়েছি। জানামতে এরকম কাজ আর হবে না। তিনি আরও জানান, প্রকল্পের যেকোনো পণ্যের দাম নির্ধারণের ক্ষেত্রে বাজার যাচাই করে দাম নির্ধারণ করতে হবে।

এম এ মান্নান বলেন, প্রকল্প শেষ হওয়ার আগেই তা সংশোধনের প্রয়োজন হলে করতে হবে। কিন্তু শেষ হওয়ার পর যেন সংশোধনীর জন্য না আসে সে নির্দেশনাও দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

তিনি জানান, একনেক সভায় প্রায় ৮ হাজার ৯৬৮ কোটি টাকায় ৮ টি প্রকল্প অনুমোদন দেয়া হয়। অনুমোদিত পকল্পের মধ্যে সরকার ব্যয় করবে ৮ হাজার ৯৫২ কোটি ৫৯ লাখ টাকা এবং সংস্থার নিজস্ব ব্যয় হবে ১৫ কোটি ৪৯ লাখ টাকা।

তিনি আরও জানান, দেশে বিভাগীয় শহরগুলোতে সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ১০০ শয্যা বিশিষ্ট পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার চিকিৎসা কেন্দ্র স্থাপন করা হবে। এ প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ২ হাজার ৩৮৮ কোটি টাকা। প্রকল্পের বাস্তবায়নে পুরো অর্থায়ন সরকার করবে।

বৈঠকে অনুমোদিত অন্যান্য প্রকল্পগুলো হলো, সড়ক পরিবহর ও সেতু মন্ত্রণালয়ের দু’টি প্রকল্প ‘ময়মনসিংহ (রঘুরামপুর)-ফুলপুর-নকলা-শেরপুর আঞ্চলিক মহাসড়ক উন্নয়ন প্রকল্প ও রাজশাহী-নওহাটা-চৌমাসিয়া সড়কের বিন্দুর মোড় হতে বিমান বন্দর হয়ে নওহাটা ব্রিজ পর্যন্ত পেভমেন্ট ৪ লেনে উন্নীতকরণ প্রকল্প; স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রণালয়ের রাজশাহী মহানগরীর উপশহর মোড় থেকে সোনাদিঘী মোড় এবং মালোাড়া মোড় হতে সাগরপাড়া মোড় পর্যন্ত সড়ক প্রশস্তকরণ ও উন্নয়ন প্রকল্প; প্রধানমন্ত্রী কার্যালয়ের আশ্রয়ণ-২ প্রকল্প; মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের জুনোসিস এবং আন্তঃসীমান্তীয় প্রাণিরোগ প্রতিরোধ ও নিয়ন্ত্রণ গবেষণা প্রকল্প; পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের স্ট্রেংদেনিং মনিটরিং এন্ড ইভালুয়েশন ক্যাপাবিলিজ অব আইএমইডি’ প্রকল্প; বিদ্যুৎ জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের ‘ভারতের ঝাড়খন্ডে হতে বাংলাদেশে বিদ্যুৎ আমদানী করার লক্ষ্যে চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলার রহনপুর থেকে মনাকষা সীমান্ত পর্যন্ত ৪০০ কেভি সঞ্চালন লাইন নির্মাণ প্রকল্প।

একনেক বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন, অর্থমন্ত্রী আহম মুস্তাফা কামাল, পরিকল্পনা মন্ত্রী এম এ মান্নান, সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, কৃষিমন্ত্রী আব্দুর রাজ্জাকসহ আরো অনেকে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ