প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মোদি ও ইমরানের সঙ্গে সাক্ষাতের আগে কাশ্মীর পরিস্থিতির অগ্রগতির কথা জানালেন ট্রাম্প

রাশিদ রিয়াজ : হিউস্টনে ভারতীয়-মার্কিনিদের অনুষ্ঠান ‘হাউডি মোদি’-তে প্রধানমন্ত্রী মোদির সঙ্গে সাক্ষাৎ করবেন ট্রাম্প। এর পর ট্রাম্প সাক্ষাত করবেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের সঙ্গে। এর আগেই ওয়াশিংটনে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সোমবার জানালেন যে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা অনেকটাই হ্রাস পেয়েছে। বললেন, আমি – ভারত – পাকিস্তানের (প্রধানমন্ত্রীর) সঙ্গে বৈঠকও করব। তবে আমি মনে করি যে সেখানে অনেকটাই অগ্রগতি হয়েছে … অনেক অগ্রগতি হয়েছে,” প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হোয়াইট হাউসে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে কাশ্মীরের নাম উল্লেখ না করেই এ কথা বলেন। ট্রাম্পের কর্মসূচি অনুযায়ী ইমরান খানের সঙ্গে তার বৈঠকটি চলতি মাসের শেষের দিকে নিউইয়র্কের রাষ্ট্রসঙ্ঘের সাধারণ পরিষদের অধিবেশন চলাকালীন হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে।

“হাউদি মোদি” – এই অনুষ্ঠানে ৫০,০০০ এরও বেশি ভারতীয়-মার্কিনীদের রেকর্ড ভিড় হবে বলে মনে করা হচ্ছে! সেখানেই নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন ডোনাল্ড ট্রাম্পও। ওইদিনই আবার ট্রাম্প ওহিও ভ্রমণ করবেন এবং তারপরে জাতিসংঘের বার্ষিক সাধারণ পরিষদের অধিবেশনগুলিতে অংশ নিতে নিউ ইয়র্কের উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন বলে মনে করা হচ্ছে।

গত ৫ আগস্ট নয়া দিল্লি জম্মু ও কাশ্মীরের বিশেষ মর্যাদা সমাপ্ত করার ঘোষণার পরে ভারত ও পাকিস্তানের মধ্যে উত্তেজনা আরও বেড়ে যায়। কাশ্মীর নিয়ে মোদি সরকারের ওই পদক্ষেপের প্রতিক্রিয়া স্বরূপ পাকিস্তান ভারতের সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক হ্রাস করে।

এরপরেই পাকিস্তান কাশ্মীর ইস্যুটিকে আন্তর্জাতিকীকরণের চেষ্টা করে বারবার। তবে ভারত দৃঢ়ভাবে জানিয়েছে যে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের সিদ্ধান্তটি একেবারেই দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয় । নয়াদিল্লির তরফ থেকে ইসলামাবাদকে এই বাস্তবতা মেনে নেওয়া এবং ভারতবিরোধী কথাবার্তা বন্ধ করতে বলা হয়েছে।

‘হাউডি মোদি’ – এই অনুষ্ঠানটি আমেরিকায় প্রথমবার হতে চলেছে যখন কোনও মার্কিন প্রেসিডেন্ট আমেরিকার এক জায়গা থেকে হাজার হাজার ভারতীয়-মার্কিনকে সম্বোধন করবেন। এটি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হতে চলা ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের আগে খুবই কার্যকরী ভূমিকা নেবে বলে মনে করা হচ্ছে। কেননা ভারতীয়-মার্কিনিরা এই ভোটে তাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখবেন। ইতিমধ্যেই প্রেসিডেন্ট পদে ফের প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন তিনি, ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত ভারতীয় রাষ্ট্রদূত হর্ষ বর্ধন শ্রিংলা “হাউডি মোদি” অনুষ্ঠানে ট্রাম্পের অংশগ্রহণকে “ঐতিহাসিক” এবং “নজিরবিহীন” বলে উল্লেখ করেছেন। “এটা ভারত ও আমেরিকার মধ্যে গড়ে ওঠা বন্ধুত্ব এবং সহযোগিতার দৃঢ় বন্ধনেরই প্রতিফলন,” সংবাদসংস্থা প্রেস ট্রাস্ট অফ ইন্ডিয়াকে বলেছেন তিনি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ