প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রংপুর-৩ আসন : মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে কাঁদলেন আ.লীগ প্রার্থী

নিউজ ডেস্ক : জাতীয় পার্টিকে সমর্থন দিয়ে রংপুর-৩ আসনের উপনির্বাচন থেকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করে নিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রার্থী ও দলটির রংপুর জেলার সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু। আজ সোমবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে রংপুরের আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা জি এম সাহতাব উদ্দিনের অফিসে গিয়ে এ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন তিনি।

মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের পর উপস্থিত সাংবাদিকদের সামনে কথা বলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু। এ সময় তাকে কাঁদতে দেখা যায়।

কান্নাজড়িত কণ্ঠে রেজাউল করিম রাজু বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আমাকে ঢাকায় ডেকে পাঠিয়েছিলেন। তিনি বলেছেন, “বাংলাদেশের রাজনীতি সংকটাপন্ন, এখানে রাজনীতি করতে হলে বুঝে-শুনে করতে হবে। আমি তোমাকে মনোনয়ন দিয়েছিলাম, আমি তোমাকে বলছি, দেশ ও জাতির স্বার্থে তুমি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করো।” প্রধানমন্ত্রীর এই নিদের্শের পরই আমি মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছি। রংপুর সদর আসনে নৌকার কোনো প্রার্থী না থাকলেও উন্নয়নের দায়-দায়িত্ব আমার বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।’

এর আগে আজ বিকেল ৩টা থেকে ছাত্রলীগ ও যুবলীগের কর্মী-সমর্থকরা রংপুরের কাঁচারিবাজারের মহাসড়ক অবরোধ করে রাখেন। তারা রেজাউল করিম রাজুকে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করতে বাধা দেন। সেখানে নেতাকর্মীদের মাঝে প্রায় ১ ঘণ্টা আটকে থাকেন তিনি। পরে তাদের শান্ত করে নির্বাচন কার্যালয়ে গিয়ে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন আওয়ামী লীগের এই প্রার্থী।

এর আগে চলমান একাদশ সংসদের বিরোধীদলীয় নেতা এরশাদ গত ১৪ জুলাই মারা গেলে রংপুর-৩ আসনটি শূন্য হয়। ৫ অক্টোবর ভোটের দিন রেখে উপনির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করে নির্বাচন কমিশন। আওয়ামী লীগ আভাস দিয়েছিল এবার তারা আর রংপুরে জাতীয় পার্টিকে ছাড় দিতে চায় না। এরশাদের আসনে উপনির্বাচনে আওয়ামী লীগের প্রার্থী রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজুর নাম ঘোষণা করা হয় গত ৭ সেপ্টেম্বর। অন্যদিকে নানা নাটকীয়তার পর জাতীয় পার্টি গত ৮ সেপ্টম্বর জানায়, দলের প্রতিষ্ঠাতার আসনে তার ছেলে সাদ এরশাদকে মনোনয়ন দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। তাকেই এখন সমর্থন দেবে আওয়ামী লীগ।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ