প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফ্রান্সে এবছর স্বামী ও সঙ্গীর হাতে ১০৪ নারী খুন, বছরে নির্যাতিতা ২ লাখ ২০ হাজার

রাশিদ রিয়াজ : ফ্রান্সে এ বছরের শুরু থেকে এ পর্যন্ত ১০৪ জন নারীকে খুন করেছেন তাদের স্বামী অথবা সঙ্গীরা। বিশে^র এধরনের নারীদের মৃত্যুর হার ফ্রান্সেই সর্বোচ্চ হারে পৌঁছেছে বলে দাবি করা হচ্ছে। দেশটির জাতীয় সংসদের পক্ষ থেকে দেয়া এ তথ্য দিয়ে বলা হচ্ছে স্বামী বা সঙ্গীর হাতে নারীদের খুনের এ হার বজায় থাকলে মৃতের সংখ্যা দেড়শ ছাড়িয়ে যাবে।

সেপ্টেম্বরের শুরুতে প্যারিসে স্বামী বা সঙ্গীর হাতে ১শ নারীর খুনের প্রতিবাদে বিক্ষোভ অনুষ্ঠিত হয়। ফ্রান্স সরকারকে এধরনের খুন বন্ধ করতে কার্যকর উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানান বিক্ষোভকারীরা। তাদের হাতে মৃতদের নাম সম্বলিত প্ল্যাকার্ড ছিল। হিসেবে দেখা গেছে প্রতি দুদিন অন্তর ফ্রান্সে একজন নারী তার স্বামী বা সঙ্গীর হাতে খুন হচ্ছেন। এধরনের গৃহ সন্ত্রাস রুখতে ফ্রান্স সরকারকে উদ্যোগ নেয়ার আহবান জানিয়েছে দেশটির সুশীল সমাজ।

ইউরোনিউজকে অনেকে বলেছেন এবছর খুন হওয়ার আগে অনেক নারী পুলিশের কাছে তাদের স্বামী বা সঙ্গীর হাতে নির্যাতন, মেরে ফেলার হুমকির কথা জানিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ এসব অভিযোগ গুরুত্ব দিয়ে কোনো উদ্যোগ নিতে ব্যর্থ হওয়ায় তাদের খুন হওয়ার ঘটনা রোধ করা সম্ভব হয়নি।

এক হিসেব বলছে বছরে ২ লাখ ২০ হাজার ফরাসী নারী গৃহসন্ত্রাসের শিকার হয়। ২০১৬ সালে ১২৩ জন নারী তার ছেলেবন্ধু, স্বামী, সাবেক বন্ধু, ভাই, সন্তানের হাতে মারা যান। ২০১৭ সালে এ সংখ্যা ছিল ১৩৫ ও গত বছর তা দাঁড়ায় ১২০। লা মন্ডে পত্রিকা বলছে সচেতন হলে এবং কার্যকর উদ্যোগ নিলে অধিকাংশ খুনের ঘটনা রোধ করা সম্ভব হত। নারী খুনের ৮৩ শতাংশ ঘটে নিজেদের ঘরে এবং এসব হত্যায় অস্ত্র ব্যবহার করা হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ