প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতে প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীবের খোঁজে সিবিআই‘র হানা নবান্নে

রাশিদ রিয়াজ : ভারতে সিবিআই এর তরফ থেকে ইতিমধ্যে রাজীব কুমারকে তলব করা হলেও হাজির হননি তিনি। প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের খোঁজেই রোববার নবান্নে হানা দিল সিবিআই। তিনি কোথায় আছেন, তা জানতে চাওয়ার উদ্দেশে তার ঊর্ধ্বতনদেরই চিঠি দিল সিবিআই। সল্টলেকের সিজিও কমপ্লেক্সের সিবিআই দফতর থেকে তিন সিবিআই আধিকারিক নবান্নে পৌঁছান তিনটি চিঠি নিয়ে। যদিও রোববার হওয়ার কারণে মুখ্যমন্ত্রীর কার্যালয়ে কারো দেখা মেলেনি।সিবিআই আধিকারিকরা জানিয়েছেন, সেখান থেকে তাদের জানিয়ে দেওয়া হয়, ”আজ রবিবার ছুটির দিন। তাই কাউর সাথেই দেখা মিলবে না।”যদিও চিঠিতে কি লেখা আছে সে বিষয়ে কোনো ভাবেই মুখ খোলেন্নি সিবিআই কর্তারা।

সূত্রানুসারে, রাজীব কুমারের গ্রেফতারির সম্ভাবনা উড়িয়ে দেওয়া যাচ্ছে না। তবে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। শুক্রবার রাজীব কুমারের ওপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয় কলকাতা হাইকোর্ট। তারপরই রাজীবকে সিজিও কমপ্লেক্সে তদন্তকারী দলের সামনে উপস্থিত হতে নোটিস দেয় সিবিআই। বর্তমানে সিআইডির অতিরিক্ত অধিকর্তা রাজীব। সারদা মামলায় রাজ্য সরকার গঠিত বিশেষ তদন্তকারী দলের সদস্য ছিলেন তিনি।২০১৪ সালে সুপ্রিম কোর্ট মামলার তদন্তভার তুলে দেয় সিবিআইয়ের হাতে। ২,৫০০ কোটি টাকার সারদা কাণ্ডে বহু মানুষ প্রতারিত হন।

গত মে মাসে সুপ্রিম কোর্ট গ্রেফতারি থেকে বাঁচতে রাজীবের আর্জি নাকচ করে দেয়। তুলে নেয় রক্ষাকবচ। ১৭ মে সাত দিনের জন্য রাজীবকে গ্রেফতারি থেকে সুরক্ষা দিয়েছিল শীর্ষ আদালত। এরপরও তিনি সেই সুরক্ষার মেয়াদ আরও বাড়ানোর আর্জি জানান।

শুক্রবার কলকাতা হাইকোর্ট প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারের গ্রেফতারির উপর থেকে রক্ষাকবচ তুলে নেয়। পাশাপাশি সিবিআই দফতরে রাজীবকে হাজিরা দেওয়ার যে নোটিস পেশ করে সিবিআই তা বাতিল করার জন্য আবেদন করলে সেটিও নাকচ করে দেয় আদালত।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি, সিবিআই আধিকারিকদের একটি দল রাজীব কুমারের বাড়ি ঢুকতে গেলে তাঁদের বাধা দেওয়া হয়। তাঁরা রাজীব কুমারকে ওই চিট ফান্ড কাণ্ডের সঙ্গে তাঁর যোগাযোগ নিয়ে প্রশ্ন করতে গিয়েছিলেন। পরে সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশে শিলংয়ে রাজীবকে জেরা করে সিবিআই।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ