প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমি বেঁচে থাকতে বাংলার মাটিতে এনআরসি হতে দেব না, বললেন মমতা

নিউজ ডেস্ক: ‘শান্তির ললিত বাণী শোনাইবে ব্যর্থ পরিহাস/ বিদায় নেবার আগে তাই ডাক দিয়ে যাই/ দানবের সাথে যারা সংগ্রামের তরে/ প্রস্তুত হতেছে ঘরে ঘরে’ ভাষণ শেষ করলেন এভাবে। আর শুরুতে বললেন, ‘আমি বেঁচে থাকতে বাংলার মাটিতে এনআরসি হতে দেব না।’দেশ রুপান্তর।

আসামে বিজেপির করা নাগরিকপঞ্জি তথা এনআরসির প্রতিবাদে পদযাত্রা শেষে নিজের ভাষণে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকারকে এভাবে চ্যালেঞ্জ জানান পশ্চিমবঙ্গের জনপ্রিয় নেত্রী এবং সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। পুরো আয়োজনটি তার ফেইসবুক থেকে লাইভ করা হয়।

আসামে এনআরসির কারণে বাদ পড়েছে ১৯ লাখ মানুষের নাম। তারা এখন ভারত থেকে বিতাড়িত হওয়ার শঙ্কায় দিন গুনছেন।

মমতা এদিন বলেন, ‘আসামে যে ১৯ লাখ মানুষ এনআরসিতে বাদ পড়েছেন তার মধ্যে ১২ লাখ হিন্দু। বাকিদের মধ্যে বৌদ্ধ, মুসলিম ও গোর্খারাও। অনেকে জন্মনিবন্ধন পত্র দিয়েও এনআরসিতে ঠাঁই পাননি।’

লোকসভা নির্বাচনের আগে দেশ জুড়ে এনআরসি করার ‘প্রতিশ্রুতি’ দিয়েছিল বিজেপি। মোদি সরকার দ্বিতীয় বার ক্ষমতায় আসার পর আসামে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি প্রকাশিত হয়। পশ্চিমবঙ্গেও এনআরসি করার ‘হুঁশিয়ারি’ দিচ্ছেন বিজেপির কেন্দ্রীয় ও রাজ্য স্তরের নেতারা।

চ্যালেঞ্জের সুরে মমতা বলেন, ‘আর একটা বঙ্গভঙ্গের চেষ্টা করলে চলবে না, আগুন নিয়ে খেলবেন না। ক্ষমতা থাকলে বাংলার গায়ে হাত দিয়ে দেখান। দুকোটি কেন, দুজনের গায়েও হাত দিয়ে দেখান। আমি বেঁচে থাকতে বাংলায় এনআরসি হবে না।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত