প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বালিশ, মেডিকেলের বই, পর্দা কাহিনি অতি ক্ষুদ্র চুরি হলেও তা কিন্তু শুরু হয় ছোটবেলা থেকেই

মাহবুব কবির মিলন : বান্ধবীরা এসেছে বাসায়। মচকানো পা নিয়ে মেয়ের মা সারাদিন রান্নাঘরে দাঁড়িয়ে রান্না করে আদর যত্ন করে খাওয়ালো। মেয়ে তার পছন্দের জিনিসপত্র সাজিয়ে রেখেছে টেবিলে। বান্ধবীরা যাওয়ার পর দেখা গেলো একটি জিনিস হাওয়া। এক কলেজে ক্লাসে একজনের ব্যাগ থেকে দামি স্মার্টফোন চুরি করলো তার সহপাঠী। ক্লাসে সিসি ক্যামেরায় চোর সনাক্ত হলো। চোরের মাকে ডাকা হলো। তিনি সিসি ক্যামেরায় ভালো করে বারবার দেখে প্রচ- প্রতিবাদ করে উঠলেন। তার চিতকারে ঘাবড়ে গেলেন প্রিন্সিপ্যাল সহ উপস্থিত সকলে। মা জননীর প্রতিবাদ হচ্ছে, অন্যের ব্যাগ থেকে নেয়া জিনিসটা তো দেখা যাচ্ছে ক্যালকুলেটর, মোবাইল নয়।

বালিশ, মেডিকেলের বই, পর্দা কাহিনি অতি ক্ষুদ্র চুরি হলেও তা কিন্তু শুরু হয় ছোটবেলা থেকেই। নার্সারি, কেজি কিংবা ক্লাস ওয়ানে পেন্সিল, রাবার কলম চুরির হাতে খড়ির মাধ্যমে। সম্মানিত পিতা মাতারা, আপনি কতোটুকু শিক্ষা দিয়েছেন আপনার সন্তানকে এবং তার আচার-আচরণ দিয়েই বুঝে নিতে পারবেন, আপনার সন্তান বড় হলে ক্ষুদ্র চোর না বড় চোর হবে। ফেসবুক থেকে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত