প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইয়াজিদের কবর কেউ খুঁজে পায়নি (ভিডিও)

নিউজ ডেস্ক : মহররমের দশ তারিখ আসরের নামাজের সময় ইমাম হোসাইন (রা.) শহিদ হয়ে যান। এরপর ইমামের তাবুর ওপর নেমে আসে ধ্বংসলীলা। ইয়াজিদের সৈন্য বাহিনী তাবু ভেঙ্গে তছনছ করে ফেলে। ইমামের পরিবারের যেসব মূল্যবান জিনিস ছিল তা লুটপাট করে নেয়।
এরপর নবী পরিবারের মহিলা সদস্যদের হাতে ও পায়ে বেড়ি বেঁধে ইয়াজিদের দরবার সিরিয়ার উদ্দেশে যাত্রা করে।

ইয়াজিদের দরবারে পৌঁছার পর ইমাম হোসাইনের (রা.) বোন বিবি জয়নবকে ইয়াজিদ উপহাস করে বলে, হে জয়নব তোমার খোদা তোমাদের সাথে কী আচরণ করেছে দেখেছ?

জবাবে বিবি জয়নব বলেন, আমি এর মাঝে কোনো অসুন্দর দেখছি না। কারণ আমরা জানি আমাদের জন্য কী অপেক্ষা করছে।

হুজ্জাতুল ইসলাম সৈয়দ ফিরোজ আলী আবেদী এসম্পর্কে বলেন, কারবালার মরুপ্রান্তরে ইয়াজিদের বাহিনীর কাছে ইমাম হোসাইন (রা.) ও পরিবারের সদস্যসহ ৭২ জন শহিদ হওয়ার পর ইয়াজিকে সবাই ধিক্কার দিতে থাকে।

তার দরবারে আসা অন্যান্য ধর্মের বিভিন্ন দেশের গণ্যমান্য ব্যক্তিরাও তাকে ধিক্কার দিয়ে বলে তুমি তোমার দীনের ইমামকে হত্যা করে খুবই পাপের কাজ করেছে। এক পর্যায়ে ইয়াজিদ ঘরের বাইরে আসা বন্ধ করে দেয়। এভাবে কিছুকাল চলার পর ইয়াজিদ ভয়ঙ্কর এক রোগে আক্রান্ত হয়। সে যেখানেই যায় কোথাও শান্তি পায় না।

তিনি বলেন, কোনো একদিন ইয়াজিদ শিকারের উদ্দেশে বের হয়। এক পর্যায়ে সে ঘোড়া থেকে পড়ে যায়, কিন্তু তার পা ঘোড়ার লাগামের সাঙ্গে আটকে যায়। কিন্তু ঘোড়া দ্রুত বেগে চলতে থাকে আর ইয়াজিদের মাটির সঙ্গে ঘসতে ঘসতে মৃত্যু বরণ করে। এরপর ইয়াজিদের লাশের কি হয়েছিল তার কোনো খবর কেউ দিতে পারে নাই। পৃথিবীতে ইয়াজিদের কবর কোথাও পাওয়া যায় না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত