প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সীমিত শয্যার কারণে নড়াইল সদর হাসপাতালে শিশুদের চিকিৎসা সেবা ব্যাহত

শেখ নাঈমা জাবীন : নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালে শিশু ওয়ার্ডে সীমিত সংখ্যক শয্যা থাকায় ব্যহত হচ্ছে শিশুদের চিকিৎসা সেবা। বর্তমানে শিশুরোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় হিমশিম খেতে হচ্ছে হাসপাতালের নার্স ও চিকিৎসকদের। অন্যদিকে নোংরা অস্বাস্থ্যকর পরিবেশের কারণে শিশুরা আরো অসুস্থ হয়ে পড়ছে বলে অভিযোগ স্বজনদের। একাত্তর টিভি

রোগীর তুলনায় শয্যা কম তাই একই বিছানায় দুই শিশুকে রেখে চিকিৎসা সেবা চলছে ১০০ শয্যার নড়াইল আধুনিক সদর হাসপাতালে। হাসপাতালটিতে শিশু ওয়ার্ডের শর্য্যা রয়েছে মাত্র ১৫টি। এরমধ্যে ৭টিই আছে আইসিইউতে। কিন্তু বর্তমানে হঠাৎ করেই শিশু রোগীর সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় অনেকেরই জায়গা হয়েছে হাসপাতালের মেঝে বা বারান্দায়। রোগীর স্বজনরা বলেছেন, এভাবে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে শিশুরা আরো অসুস্থ হচ্ছে।
হাসপাতাল সংশ্লিষ্টরা বলেন, একসাথে এতো রোগীর সেবা দিতে সমস্যায় পরছেন তারা।

আমাদের বর্তমানে রোগী আছে ১২০জন, যা আমাদের ধারণ ক্ষমতার বাইরে। আমাদের প্রত্যেককে কাজ করতে গিয়ে হিমশিম খেতে হচ্ছে।
আর চিকিৎসকরা বলছেন, হাসপাতালে শয্যা সংখ্যা বাড়াতে পারলে এ সমস্যার সমাধান সম্ভব। তবে এর মধ্যেও সাধ্যমতো কাজ করছেন তারা।
নড়াইল সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক ডা. মশিউর রহমান বাবু বলেন, ইতোমধ্যেই নড়াইলে সদর হাসপাতালের ২৫০ শর্য্যার কাজ শুরু হয়েছে। ২০১৯ সালের শেষ নাগাদ বা ২০২০ সালের প্রথমদিকে শেষ হবে। তখন আমাদের এই স্থানের সমস্যা আর থাকবে না। আমরা শিশু ওয়ার্ডটি তখন ওখানে স্থানান্তর করতে পারবো।

কর্তৃপক্ষ বলছে, হাসপাতালটিতে ১০০শয্যার সব সুযোগ সুবিধাসহ সরকারি বরাদ্দ রয়েছে। তবে জনবল সংকটের কারণে চিকিৎসা সেবা ব্যহত হচ্ছে। সম্পাদনা : খালিদ আহমেদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ