প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সাংবাদিক মামুনের স্মরণে নড়াইলে একটি সড়কের নামকরণ করা হবে

আরিফা রাখি : গতকাল ছিলো সাংবাদিক মামুন রশিদের প্রথম মৃত্যুবার্ষিকী। সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আর সি মজুমদার হলে মামুনের সতীর্থ ও সহকর্মীরা এক স্মরণ সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রীর উপ-প্রেস সচিব আশরাফুল আলম খোকন জানান, প্রয়াত সাংবাদিকের গ্রামের বাড়ি নড়াইলের লোহাগড়ায় একটি সড়কের নাম রাখা হবে সাংবাদিক মামুন সড়ক। স্থানীয় সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা এ আশ্বাস দিয়েছেন বলে খোকন উল্লেখ করেন।
নড়াইলের লোহাগড়ায় জন্ম নেয়া মামুনুর রশিদ ২০১৮ সালের এই দিনে মাত্র ৩৩ বছর বয়সে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মৃত্যুবরণ করেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগ থেকে অনার্স ও মাস্টার্স সম্পন্ন করা মামুন তখন একুশে টেলিভিশনে কর্মরত ছিলেন এবং প্রধানমন্ত্রী বিটের সংবাদ সংগ্রহের দায়িত্বে ছিলেন। এর আগে এশিয়ান টিভি ও বাংলাভিশনেও কর্মরত ছিলেন মামুন।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক বলেন, মামুন আমার ছাত্র ছিল। তার মতো হাসিমুখের একজন ছেলে এত তাড়াতাড়ি চলে যাবে তা ভাবা যায় না।

একুশে টেলিভিশনে মামুনের বিভিন্ন কার্যক্রমের স্মৃতিচারণ করে প্রখ্যাত সাংবাদিক মনজুরুল আহসান বুলবুল বলেন, মামুন যে পর্যায়ে যেভাবে সাংবাদিকতা করতো, চাইলে সহজেই অনেক টাকার মালিক হতে পারত। কিন্তু তার মাঝে সেই চিন্তাই ছিল না। তার মৃত্যুর পর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে মাত্র কয়েক হাজার টাকা ছিল।

আওয়ামী লীগের সংস্কৃতি বিষয়ক সম্পাদক অসীম কুমার উকিল সাংবাদিক মামুনের স্মৃতিকে ধরে রাখতে যেকোনো ধরনের সহযোগিতার আশ্বাস দেন।
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ বলেন, সাংবাদিক হিসেবে মামুন যেভাবে সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন, তা বর্তমান সময়ে সবার জন্য শিক্ষণীয়। মামুন যে অসা¤প্রদায়িক চেতনাকে ধারণ করে সাংবাদিকতা করতেন তাও শিক্ষণীয়।

অনুষ্ঠানে মামুনের জীবনের উল্লেখযোগ্য দিক ও সাংবাদিকতা নিয়ে স্মৃতিচারণ করে আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, কেন্দ্রীয় সদস্য এস এম কামাল হোসেন, যুবলীগের উপ দপ্তর সম্পাদক নাসিম রূপক, ইকবাল মাহমুদ বাবলু, ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি বদিউজ্জামান সোহাগ, সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জয়দেব নন্দী, যুব মহিলা লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শারমিন সুলতানা লিলি, ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক এসএম জাকির হোসেন, ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী ও ডাকসুর এজিএস সাদ্দাম হোসেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ