প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সৎ মা করিনাকে নিয়ে ফের একবার প্রকাশ্যেই মুখ খুললেন সইফ কন্যা সারা

মুসবা তিন্নি : আজকাল প্রায় মাঝে মধ্যেই পেজ থ্রির খবরে উঠে আসেন সইফ-অমৃতা কন্যা সারা। বলিউডে এসেই পরপর দু’দুটি ছবি ‘কেদারনাথ’, ‘সিম্বা’তে সাফল্যের ফলে সারার কেরিয়ার অন্যদিকে মোড় নিয়েছে। খুব শীঘ্রই, ইমতিয়াজ আলির’ লাভ আজকাল-২ ছবিতেও কার্তিকের বিপরীতে দেখা যাবে সারাকে। আবার ‘কুলি নাম্বার-১’এ বরুণ ধাওয়ানের বিপরীতেও দেখা যাবে সারাকে। জি নিউজ বাংলা

এদিকে শুধু কেরিয়ারেই নয়, ব্যক্তিগত জীবনেও সকলের সঙ্গে সু-সম্পর্ক বজায় রাখেন সারা। মা অমৃতার সঙ্গে সইফের বিচ্ছেদ হয়ে গেলেও করিনা, তৈমুরের সঙ্গে সারার সম্পর্ক কিন্তু বেশ ভালো, বিশেষ করে করিনার সঙ্গে। মাঝে মধ্যেই সইফ, করিনা, তৈমুর, ইব্রাহিম ও সারাকে একসঙ্গে সময় কাটাতে দেখা যায়। এর আগেও বহুবার করিনাকে নিয়ে মুখ খুলেছেন সইফ কন্যা সারা। এবার ফের একবার বেবোকে নিয়ে মুখ খুললেন তিনি। এর আগে করিনা-সারার সম্পর্ক নিয়ে সইফ বলেছিলেন বেবো সবসময়ই সারার বন্ধু হতে চেয়েছে। সইফের কথা প্রসঙ্গেই সম্প্রতি ফেমিনা ম্যাগজিনের তরফে সারাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ”আমার মনে হয় না করিনা শুধু আমার বন্ধু, ও তার থেকেও বেশি কিছু। ও আমার বাবার স্ত্রী। আমি ওকে সম্মান করি। আমি এটা বেশ অনুভব করি করিনা আমার বাবাকে সুখী করতে পেরেছে। আমাদের পেশাও এক। আমাদের জগৎটাও তাই এক। মাঝে মধ্যেই আমাদের এনিয়ে কথাবার্তাও হয়ে থাকে।”

এই একই সাক্ষাৎকারে তৈমুরকে নিয়ে সইফ-করিনার সচেতনতা প্রসঙ্গে সারাকে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, ”আমি বুঝতে পারি তৈমুরকে নিয়ে বাবা কেন এতটা সচেতন। কারণ তৈমুর আজকাল একটু বেশিই পাপারাৎজির ক্যামেরার ফ্ল্যাশে থাকে। আর আমার বাবা কখনওই চায় না যে তৈমুর তার বেড়ে ওঠার মুহূর্তে শৈশবেই বুঝে যাক যে ও একজন বিশেষ কেউ। যদিও তৈমুরের মিডিয়ার ফ্ল্যাশে থাকার বিষয়ে আমরা কেউই কিছুই করতে পারি না। তবে আমি এবিষয়ে নিশ্চিত আমার বাবা ও করিনা তৈমুরকে শৃঙ্খলার মধ্যেই বড় করে তুলবে। তাতে মিডিয়ার নজরে থেকেও তৈমুরের কোনও ক্ষতি হবে না। সম্পাদনা : রাশিদ/মহসীন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত