প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রতিদ্বন্দ্বিতাই মেসি-রোনালদোকে খেলা শিখিয়েছে, বললেন রোনালদো

রাকিব উদ্দীন : ফুটবল বিশ্বে রিয়াল-বার্সা দ্বৈরথ সমর্থকদের কাছে সবথেকে বেশি জনপ্রিয়। ঠিক তেমন মেসি ও রোনালদোর প্রতিদ্বন্দ্বিতা ফুটবলে সবচেয়ে বেশি সমালোচিত। আর দুজনের এরূপ প্রতিদ্বন্দ্বিতা ও আন্তরিকতা নিয়ে পর্তুগিজ টেলিভিশন টিভিআইকে এক সাক্ষাৎকার দেন জুভেন্টাস ফরোয়ার্ড ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো।

সময়ের দুই সেরা তারকা হওয়ায় কিংবা একই দেশের দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ক্লাবে খেলায় রোনালদো-মেসির অবস্থানটা বরাবরই দুই বিপরীত মুখে। তাই বলে বার্সেলোনার আর্জেন্টাইন অধিনায়ক মেসির প্রতি সাবেক রিয়াল মাদ্রিদ ফরোয়ার্ড রোনালদোর মুগ্ধতার কোনো কমতি নেই, ‘এখন পর্যন্ত তার যা ক্যারিয়ার সেটা আমি শ্রদ্ধা করি। আর তার দিক থেকে, সে নিজেও বলেছে যে আমি যখন স্প্যানিশ লিগ ছেড়ে আসি তখন সে সমস্যায় পড়েছে। কারণ এই প্রতিদ্বন্দ্বিতার গুরুত্ব সে বুঝত।’

রোনালদোর মতে, একে অন্যকে ছাড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টাটা তাদেরকে অনন্য উচ্চতায় পৌঁছাতে সাহায্য করেছে, ‘এটা ভালো যে, ফুটবলে এমন প্রতিদ্বন্দ্বিতা রয়েছে, তবে এটা কোনো ব্যতিক্রম নয়। বাস্কেটবলে মাইকেল জর্ডানের প্রতিদ্ব›দ্বী ছিল, আরতোন সেনা ও অ্যালেইন প্রস্ট ফর্মুলা ওয়ানে প্রতিদ্ব›দ্বী ছিলেন। ক্রীড়াক্ষেত্রে বড় বড় সব প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্যে যে মিলটা খুঁজে পাওয়া যায় তা হলো সেগুলো সুস্থ প্রতিযোগিতা। মেসি আমাকে ভালো খেলোয়াড় বানিয়েছে আর আমি তাকে।’

প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি হলে প্রতিদ্বন্দ্বীদের মধ্যে সম্পর্কটা বেশিরভাগ সময়ই তেতো হয়ে যায়। তবে মেসির সঙ্গে নিজের দ্বৈরথটাকে চমৎকার বলে উল্লেখ করেছেন রোনালদো। আর ভবিষ্যতে সুযোগ হলে মেসিকে নিয়ে রাতের খাবার খেতেও যেতে পারেন তিনি, ‘আমি কখনও তার সঙ্গে রাতের খাবার খেতে যাইনি কিন্তু ভবিষ্যতে কেন নয়? এটা করতে আমার কোনো আপত্তি নেই।’

সম্পাদনা : শিউলী আক্তার

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত