প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

উদ্যোক্তাদের বিনা জামানতে অর্থসহায়তা, স্টার্টআপ কোম্পানির উদ্যোগকে প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞদের সাধুবাদ

কেএম নাহিদ : উদ্যোক্তাদের বিনা জামানতে ১ থেকে ৫ কোটি টাকা পর্যন্ত সহায়তা দেয়ার বিধান রেখে স্টার্টআপ কোম্পানি গঠনের উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞরা। তারা বলছেন, এমন উদ্যোগ সফল করে তুলতে স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে হবে। সময় টিভি ১২:০০

আইন মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পর আগামী দু মাসের মধ্যে নতুন কোম্পানি গঠন সম্ভব হবে বলে জানান তথ্য প্রযুক্তি সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

সচিব বলেন, যেকোন ধরনের নতুন আইডিয়াকে স্বাগত জানাবেন তারা। আমি মনে করি না বেশি সময় লাগবে। আমরা যেন তাড়াতাড়ি করতে পারি সেই প্রচেষ্টাটা থাকবে। আশা করি দুইমাসের মধ্যে আমরা শেষ করতে পারবো। নতুন এ কোম্পানির প্রধান হবেন তথ্য প্রযুক্তি সচিব।

তিনি জানান, আইন মন্ত্রণালয়ের অনুমোদনের পর মন্ত্রিসভার চ‚ড়ান্ত অনুমতির পর কোম্পানি গঠনে পুরোদমে কাজ শুরু করবেন তারা।

৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনে, পরিশোধিত ২০০ কোটি টাকা নিয়ে যাত্রা শুরু করবে নতুন কোম্পানি। পরিচালনা কমিটির বৈঠকে আলোচনা করে গড়ে তোলা হবে নীতি কাঠামো।

প্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ সালাহউদ্দিন সেলিম বলেন, অবশ্যই প্রকল্পটা এগোচ্ছে কীভাবে সেটাকে মনিটরিং এ রাখা দরকার। পাশাপাশি শুধু আইটিদের এই স্টার্টআপে অনুদান না দিয়ে আমি মনে করি যেকোন আইডিয়া বেইজ প্রকল্প আসতে পারে।
সফল উদ্যোক্তা গড়ে তুলতে প্রকল্পের সম্ভব্যতা যাচাই বাছাই করে অর্থ ছাড় করার পরামর্শ, প্রয়োজনে রাখতে হবে মনিটরিং সেল।

তরুণ উদ্যোক্তাদের অনেক নতুন আইডিয়া অঙ্কুরে বিনষ্ট হয় টাকার অভাবে।

গেলো ২ বছর ধরে তথ্য প্রযুক্তি বিভাগের তত্ত্বাবধানে আইডিয়া প্রকল্পের আওতায় প্রযুক্তি নির্ভর স্টার্টআপ প্রকল্পে অর্থায়ন করা হচ্ছে। এই প্রকল্পে এখনো পর্যন্ত ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত ৯৬টি প্রকল্পে অর্থায়ন করা হয়েছে। তবে, উদ্যোক্তাদের সহায়তায় প্রথমবারের মতো মন্ত্রিসভায় অনুমোদন দেয়া হয়েছে স্টার্টআপ বাংলাদেশ কোম্পানি। এই কোম্পানির মাধ্যমে উদ্যোক্তারা জামানত ছাড়াই ১ থেকে ৫ কোটি টাকা নিতে পারবে। সম্পাদনায়: রেজাউল আহসান ও রাশিদ রিয়াজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত