প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ট্রাম্পের কথাই রইলো, ইলহান ওমর ও রাশিদা তায়েব ইসরায়েলে নিষিদ্ধ

সালেহ্ বিপ্লব :ইহুদীবাদ ও  ইসরায়েলের কড়া সমালোচক, ডেমোক্রেট দলের আইনপ্রণেতা ইলহান ওমর ও রাশিদা তায়েব আগামী সপ্তাহে পশ্চিম তীর ও পূর্ব ইসরায়েল সফর করার কথা ছিলো। তারা দুজনেই ইসরায়েলকে বর্জন আন্দোলনে সমর্থন দিয়েছেন, আর এ কারণ দেখিয়েই তাদের ভ্রমণ-অনুমতি না দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইসরায়েল।  বিবিসি

ইসরায়েল এমন কিছু করুক, এমনটা চেয়েছিলেন খোদ মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।  ইলহান ওমর ও রাশিদা তাইয়েবের সফরের ব্যাপারে তিনি আগেই টুইট করেছিলেন। তিনি লিখেন, দুজনেই ইসরায়েল ও ইহুদীদের ঘৃণা করেন।  তারা তাদের মন পরিবর্তন না করলে কিছুই করার নেই। ইসরায়েলের উদ্দেশে ট্রাম্প বলেন, এই দুজনকে ভ্রমণের অনুমতি দিলে বড়ো ধরনের দুর্বলতা প্রকাশ পাবে।

ইসরায়েলের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক বিবৃতিতে বলেছেন, তাদের দেশের ক্ষতি করতে পারে, এমন কাউকে তারা ভ্রমণের অনুমতি দেবেন না। যদিও আগের মাসেই যুক্তরাষ্ট্রে ইসরায়েলের রাষ্ট্রদূত রন ডার্মার বলেছিলেন, মার্কিন কংগ্রেস ও দুই দেশের সম্পর্কের প্রতি  শ্রদ্ধা জানাতে দুই ডেমোক্রেট কংগ্রেসওম্যানকে ইসরায়েল ভ্রমণের অনুমতি দেয়া হবে।

ইসরায়েলের সিদ্ধান্তের ত্ব্রী নিন্দা জানিয়েছেন ইলহান ওমর ও রাশিদা তাইয়েব। ইলহান ওমর বলেন, এটি গণতান্ত্রিক মূল্যবোধের প্রতি অসম্মান। বন্ধুদেশের প্রতিনিধিদের প্রতি শীতল আচরণ।

এদিকে, বিকেলে রিপোর্টারদের প্রশ্নের জবাবে ডোনাল্ড ট্রাম্প বলেছেন, আমি ভাবতেই পারি না যে, ইসরায়েল তাদেরকে ভ্রমণের অনুমতি দেবে। উল্লেখ্য, এর আগে যে কংগ্রেসওম্যানদের কটাক্ষ করে ট্রাম্প বিতর্কিত হন, ইলহান ওমর ও রাশিদা তায়েব তাদের মধ্যে ছিলেন।

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত