প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

লেবানন উদার দেশ হিসেবে বিবেচিত হলেও নারীরা অধিকারে পিছিয়ে

ফাতিমা জান্নাত : বিশ্বের লেবানন বৈষম্যের বিচারে তালিকার দিক থেকে দ্বিতীয়। এদেশের নারীরা সামাজিকভাবে স্বাধীনতা পেলেও আইনগত অধিকারের বিবেচনায় পুরুষদের তুলনায় নারীরা অনেক কিছু থেকেই বঞ্চিত। বিবিসি টিভি। ৯:০০

লেবাননকে আরব বিশ্বের উদার দেশ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ধর্মীয় কারণে এখানে অনেক সীমাবদ্ধতা থাকলেও নারীরা স্বাধীনতা উপভোগ করতে পারে। এছাড়া সকল বিষয় নিজেরাই সিদ্ধান্ত নিতে পারে বলে জানান বিশেজ্ঞরা।

আইনজীবিরা বলেন, লেবাননের আইনে যেসব অধিকারের কথা বলা আছে সেখানে পুরুষের তুলনায় নারীরা অনেক পিছিয়ে রয়েছে। আইনের পরিবর্তনের জন্য অনেক দিন ধরে চেষ্টা করছে কাফা নামক সংগঠন।

এখানে অনেক আইন আছে কিন্তু নারীর অধিকারে সব আইন এক। সম্প্রদায় বা ধর্ম সব জায়গায় নারীরা বৈষম্যের শিকার। এসব আইন কোন সাংবিধানিক কমিটি তৈরি করে না। সংবিধানেও এগুলো অনুমোদন করেনা। ধর্মীয়রা নিজেরাই এসব আইন তৈরি করেন।

ধর্মীয় আদালতেই এসব আইন প্রয়োগ করা হয়। নারীরা আইনে তাদের অধিকার দাবিতে বিক্ষোভ করলেও কোন কাজ হয়নি। তবে তাদেরকে সাবধান করে দেয়া হয়েছে। সম্পাদনা : রাশেদ

সর্বাধিক পঠিত