প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুজব ছড়ানোর জন্য ১০টি অনলাইন পোর্টাল, ৬০ ফেসবুক পেইজ, ২৫ ইউটিউব চ্যানেল বন্ধ করা হয়েছে, জানালেন আইজিপি

মহসীন কবির ও ইসমাইল হোসেন ইমু : পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী বলেছেন, গণপিটুনিতে যারা নিহত হয়েছেন, তারা কেউই ছেলে ধরা নয়, গুজব ছড়ানোর জন্য ১০টি অনলাইন পোর্টালসহ ৬০টি ফেসবুক পেইজ বন্ধ করা হয়েছে। মামলা হয়েছে ৩১টি, ২৫টি ইউটিউব চ্যানেল  বন্ধ ও গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১০৩ জনকে। বুধবার সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি গুজবে কান না দেওয়ার আহ্বান জানান।

পুলিশের মহাপরিদর্শক বলেছেন, পদ্মাসেতু নিয়ে গুজব ছড়ানোর ঘটনায় সরকারবিরোধী রাজনৈতিক দলের ব্যক্তিদের লিংক পাওয়া গেছে। একটি স্বার্থান্বেষী মহল সুপরিকল্পিতভাবে দেশের পরিস্থিতিকে অস্থিতিশীল করতে এ ধরনের গুজব ছড়াচ্ছে। এ সংক্রান্ত প্রথম যে পোস্টটি আমাদের নজরে আসে সেটি ছিল দুবাই থেকে। দুবাইয়ের এক ব্যক্তি এই পোস্টটি করেন।

তিনি বলেন,  সম্প্রতি স্বার্থান্বেষী মহল বিভ্রান্তি ছড়িয়ে দেশের পরিস্থিতি অস্থিতিশীল সৃষ্টি করছে। এগুলো কোনভাবেই কাম্য নয়। অনেকে না বুঝেই এগুলো শেয়ার করছে, এগুলোতে মন্তব্য করছে। অথচ আমরা এই গণপিটুনির ঘটনাগুলো বিশ্লেষণ করে দেখলাম এতে যে ৮ জন মানুষ মারা গেলে তাদের সবাই নিরপরাধ। তাদের কেউই ছেলে ধরা ছিল না।

তিনি বলেন, আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ও ইন্টারনেট নিয়ন্ত্রণ করতে পারি না। আমরা দেখেছি প্রতিটি ঘটনায় ইতিপূর্বেও গুজবকে ব্যবহার করে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করা হয়েছে। আমাদের দেশে ‘সাঈদীকে চাঁদে দেখা গেছে’ এমন গুজবও ছড়িয়েছে। আমাদের মানুষ খুব সহজ সরল। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কিছু পোস্ট হলে, আর সেটি যদি নেগেটিভ হয় তাহলে খুব দ্রুত শত শত লাইক-শেয়ারে ভরে যায়। এই ঘটনাগুলো পুলিশ সদর দফতরে আসার সঙ্গে সঙ্গেই জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

সম্পাদনা : রাশিদ/মহসীন

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত