প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

গুজব থেকে সমাজে নানা অস্থিতিশীলতা অস্থিরতাই কি সরকারবিরোধীদের কাম্য?

হাসান শান্তনু : নির্মাণরত পদ্মাসেতু জোড়া লাগাতে কথিত কাটা মাথা লাগানোর গুজব রাষ্ট্রের জনগণের একটা অংশকে কীভাবে আক্রান্ত করেছে, এ বিষয়ে গোয়েন্দা সংস্থাগুলো সরকারকে কোনো বার্তা দিয়েছে কী? জনমনের গুজব বিভ্রান্তি দূর করতে পদক্ষেপ নেয়ার পরামর্শ সরকারকে আগেভাগে কী দেননি গোয়েন্দা কর্মকর্তারা? শিশুর ‘কাটা মাথার’ বর্বর গুজব কোনো ব্যক্তি, বা পরিবার থেকে সমাজের সীমানা রেখা ডিঙিয়ে রাষ্ট্রের প্রায় এক লাখ ছাপ্পান্ন হাজার বর্গমাইলে ভয়ানক আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। এমন অবৈজ্ঞানিক গুজব দেশের মোট জনগোষ্ঠীর কতোজন বিশ্বাস করেন… এ প্রশ্নের চেয়ে এখন বড় কতোজন বিশ্বাস করেন না। যার ফল আমরা গত কয়েকদিন ধরে দেখছি গণপিটুনির মতো ফৌজদারি অপরাধ করেও একশ্রেণির মানুষের বিকৃত স্বস্তিতে। যারা এর শিকার হচ্ছেন তাদের হয় মৃত্যু হচ্ছে, না হলে ঠাঁই হচ্ছে হাসপাতালে। দেশে এ গুজব ছড়ালো, বিস্তৃত হলো, বিভ্রান্ত মানুষেরা আতঙ্কিত হলেন। জনগণের একটা মুখ্য অংশকে যে গুজব গ্রাস করেছে, সেই বিষয়ে আগেভাগে পদক্ষেপ নিয়ে সরকারের পক্ষে মাঠে নামতে না পারলে গণপিটুনির বর্বরতা বাড়তে পারে।

গোয়েন্দারা সরকারকে এমন বার্তা আগে দিয়ে না থাকলে তা সংস্থাগুলোর এক ধরনের ব্যর্থতা। গোয়েন্দা সংস্থাগুলো বার্তাটা যদি আগে দিয়ে থাকে তাহলে প্রশ্ন আসে, গুজব নিরসনে সরকারের দৃশ্যমান পদক্ষেপ নেই কেন? পদ্মাসেতু কর্তৃপক্ষের প্রচারমাধ্যমে এ বিষয়ে ছোট্ট একটা সংবাদ বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে দায় শেষ করার কোনো সুযোগ নেই। সরকারের প্রভাবশালী এক মন্ত্রীর দাবি, ‘গুজব ছড়াচ্ছে বিএনপি-জামায়াত’। দোষারোপের রাজনৈতিক সংস্কৃতির ধারাপাত অনুযায়ী পুরনো লেন্সে দেখে বিচার করে গুজবের বিষয়টাকে হাল্কা মনে করে উড়িয়ে দেয়ার সুযোগ নেই। বিএনপি, জামায়াতসহ সরকারবিরোধী রাজনৈতিক দলগুলো প্রতিদিন কতো কথা বলে সংবাদমাধ্যমের জায়গা দখলে রাখছে! অথচ রাষ্ট্রের অর্থনীতিসহ নানাভাবে বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ স্বপ্নের পদ্মাসেতুর নির্মাণ বিষয়ে উদ্ভট গুজবের বিরুদ্ধে তাদের কোনো বক্তব্য নেই। গুজব থেকে সমাজে নানা অস্তিতিশীলতা, অস্থিরতাই কী সরকারবিরোধীদের কাম্য? এমন একটা জনইস্যুতেও যারা রাজনীতির খেল খোঁজেন, ইস্যুটার বিস্তৃতির পেছনে তাদের মধ্যে কারও কারও ভূমিকা আছে কিনা, সেটাও খতিয়ে দেখার বিষয়। ফেসবুক থেকে

 

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত