প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ঈদের আগে বিআরটিসি বহরে যুক্ত হচ্ছে ৮৩টি ডাবল ডেকার বাস

আসিফ কাজল : যাত্রী পরিবহনে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন করপোরেশনের (বিআরটিসি) বহরে যোগ হতে যাচ্ছে ৮৩টি ডাবল ডেকার বাস। ৮৩ টি বাসের মধ্যে ৩৪টি বাস বেনাপোল বন্দরে সকল আনুষ্ঠানিকতা শেষে বাংলাদেশে প্রবেশের অপেক্ষা করছে। এসব বাসের অর্থনৈতিক আয়ুষ্কাল ধরা হয়েছে ১২ বছর।

বিআরটিসি সূত্র জানায়, রাজধানীতে বর্তমানে বিআরটিসি’র ১১শ বাস চলাচল করছে। ২০১৬ সালে বিআরটিসির জন্য দ্বিতল, একতলা এসি এবং নন-এসি বাস সংগ্রহ প্রকল্পের আওতায় ৬০০টি বাস কেনার উদ্যোগ নেওয়া হয়। পর্যায়ক্রমে কয়েক ধাপে বাংলাদেশে এসেছে ৫১৭টি বাস। বাকি ৮৩টি বাস ঈদুল আজহার আগেই আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহে বাংলাদেশে প্রবেশ করবে। অধিকাংশ বাসগুলো দেশের লংরুটে চলাচল করবে। ডাবল ডেকার বাসগুলোর প্রতিটি বাসের আসন সংখ্যা ১২০টি। বিশাল আকৃতির বাসগুলোতে আরও ৪০ জন যাত্রী দাঁড়িয়েও ভ্রমণ করতে পারবেন। প্রতিটি বাস পাঁচটি মিনিবাসের সমান যাত্রী বহন করতে সক্ষম।

এই প্রকল্পের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানায়, ভারতীয় কোম্পানি অশোক লেল্যান্ডের কাছ থেকে প্রতিটি ৭২ লাখ টাকা দরে ৩০০টি ডাবল ডেকার, ৬৯ লাখ টাকা দরে একশটি এসি সিঙ্গেল ডেকার, ৭০লাখ টাকা দরে একশটি সিঙ্গেল ডেকার এসি ইন্টারসিটি এবং ৪২লাখ টাকা দরে টাটার কাছ থেকে একশটি সিঙ্গেল ডেকার নন-এসি বাস কেনার উদ্যোগ নেওয়া হয়। প্রকল্পের আওতায় ইতোমধ্যেই একশটি এসি সিঙ্গেল ডেকার, একশটি নন-এসি সিঙ্গেল ডেকার, একশটি সিঙ্গেল ডেকার ইন্টারসিটি ও ২১৭টি ডাবল ডেকার বাস বাংলাদেশের সড়কে চলাচল করছে। বাকি ৮৩টি ডাবল ডেকার বাস আগস্টের প্রথম সপ্তাহের মধ্যেই বাংলাদেশে প্রবেশের মাধ্যমে শেষ হবে প্রকল্পের কাজ।

বিআরটিসি চেয়ারম্যান ফরিদ আহমদ ভূঁইয়া বলেন, কয়েক ধাপে আমরা ইতোমধ্যেই ভারত থেকে ৫১৭টি বাস পেয়েছি। বর্ডারে সমস্ত আনুষ্ঠানিকতা শেষে আগস্টের প্রথম সপ্তাহে বাকি ৮৩টি বাস হাতে পাবো। ফলে পরিবহন ব্যবস্থাপনা আরও সহজ হবে। ঢাকাসহ সারা দেশের মানুষের যাতায়াতে ভোগান্তি কমবে। ঈদের আগে বাসগুলো যাত্রী পরিবহনে ইতিবাচক প্রভাব ফেলবে।

সম্পাদনা : বিশ্বজিৎ দত্ত/শাহানুজ্জামান টিটু

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত