প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রশাসনের হস্তক্ষেপে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল তিন স্কুলছাত্রী

তৌহিদুর রহমান নিটল, ব্রাহ্মণবাড়িয়া: ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় শুক্রবার তিনটি বাল্যবিবাহ বন্ধ করে দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ভারপ্রাপ্ত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এ . কে . এম শরীফুল হক দিনের বিভিন্ন সময়  বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত থেকে বাল্যবিবাহের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেন। ফলে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা পেল তিন স্কুলছাত্রী।

জানা যায়, পৌর এলাকার লালবাজার রেলগেইটের বাসিন্দা নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে বিয়ে হচ্ছিল বিজয়নগ থানার এক বরের সাথে। মনিয়ন্দে সপ্তম শ্রেণির এক ছাত্রীর বিয়ে হচ্ছিল কসবা উপজেলায়। ভারপ্রাপ্ত ইউএনও বিয়ে বাড়িতে উপস্থিত হয়ে বিয়ে বন্ধ করার পাশাপাশি অভিভাবকদের কাছ থেকে মুচলেকা নেন। উপজেলার ছয়ঘরিয়া গ্রামে প্রশাসনের উপস্থিতির খবর পেয়ে কনের বাড়িতে হাজির হয়নি ব্রাহ্মণবাড়িয়া সদর থেকে আসতে থাকা বর পক্ষের লোকজন। ১৫বছরের ওই মেয়েটির পরিবারের লোকজন মুচলেকায় উল্লেখ করেন নির্ধারিত বয়স না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবেন না।

আখাউড়া উপজেলার সহকারি কমিশনার (ভূমি)এ. কে. এম শরীফুল হক জানান, বিভিন্ন মাধ্যমে চারটি বাল্যবিবাহের খবর পাওয়া যায়। আমরা প্রতিটি বাড়িতে গিয়েই উপস্থিত হই। এর মধ্যে একটি মেয়ের বয়স ঠিক থাকায় বিয়ের অনুমতি দেয়া হয়। বাকিগুলোর কাগজপত্র নিয়ে দেখা যায় বিয়ের বয়স হয়নি তাই বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছি। বাল্যবিবাহ বন্ধে অভিভাবকসহ স্থানীয় জনপ্রতিনিধিগণ সহযোগিতা করেছেন।

সম্পাদনা :  মিঠুন রাকসাম

টিএ

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত