প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

৩শ শয্যা হাসপাতালে অভিযান, ১৯ দালাল আটক ৯ জনকে কারাদণ্ড

মনজুর আহমেদ অনিক, নারায়ণগঞ্জ : নারায়ণঞ্জ শহরের খানপুর ৩শ শয্যা হাসপাতালে অভিযান চালিয়েছে র‌্যাব ১১। বৃহস্পতিবার হাসপাতালটিতে র‌্যাব-১১ সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমানের নেতৃত্বে ৩ ঘন্টা অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় দালাল সন্দেহে ১৯ জনকে আটক করা হয়। যাচাই-বাছাই শেষে ৯ জনকে দালাল হিসেবে সনাক্ত করে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদয়ের মাধ্যমে ভ্রাম্যামাণ আদালত বসিয়ে ৭ দিনের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। সাজা পাওয়া ব্যক্তিরা হলেন, দুলাল হোসেন (৪২), মো.মঞ্জুরুল ইসলাম (৫০), মো.ফরিদ (৩০), আব্দুল খালেক (৩০), আব্বাস উদ্দিন (২৭), রিপন (৩৬), ইব্রাহিম (৩৫), বাদল মিয়া (৫০), মাকসুদা বেগম (২২)। ভ্রাম্যমাণ আদালতে সাজা পাওয়া সকলে নিজেদের দোষ স্বীকার করেছে। আর অযথা হাসপাতালে ঘুরোঘুরি করবে না এই মর্মে মুচলেকা দিয়ে বাকি ১০জন ছাড়া পেয়েছে।

হাসপাতালটিতে চিকিৎসা নিতে আসা অনেক রোগী ও তাদের আত্মীয় স্বজনরা বলেন, দালালদের উৎপাত নিত্যনৈমিত্তিক ব্যাপার। তাদেরকে টপকে চিকিৎসকদের কাছে পৌঁছানো কষ্টের ব্যাপার। জোর করেই তারা রোগীদের বেসরকারি হাসপাতাল-ক্লিনিকে নিয়ে যেতে চায়। আর রোগীরা কোনোমতে এই হাসপাতালের চিকিৎসকদের কক্ষে পৌঁছালেও নিস্তার নেই। কক্ষ থেকে বের হলে আরেক দফা টানাটানি শুরু হয়। এবার টানাটানি ব্যবস্থাপত্রে লেখা পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য। দালালদের পছন্দের ডায়াগনস্টিক সেন্টারে যেতে হবে।

র‌্যাব-১১ সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, হাসপাতালের অনেক দিনের ভিডিও ফুটেজ দেখে ১৯ জনকে আটক করা হয়েছিলো। জিজ্ঞাসাবাদের মাধ্যমে ৯ জনকে দালাল বলে অপরাধ সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছি। বাকিদের মুচলেকা দিয়ে ছাড়া দেয়া হয়েছে। হাসপাতালের চতুর্দিকে মাদকসেবী ও ছিনতাইকারীদের আনাগোনা রয়েছে এমন তথ্য আমাদের কাছে রয়েছে। সে ব্যাপারেও র‌্যাব কাজ করছে।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শেখ মেজবাহ-উল-সাবেরিন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে ৩শ শয্যা হাসপাতাল ও ভিক্টোরিয়া হাসপাতালের নানা ধরনের অভিযোগ ছিলো।

৩শ শয্যা হাসপাতালের আবাসিক ডাক্তার (আরপি) ডা. সামসুজ্জোহা সঞ্চয় বলেন, দালালদের বিরুদ্ধে যে আমরা ব্যবস্থা নিতে আগ্রহী সেটির প্রমাণ অভিযান। র‌্যাব-১১ ও জেলা প্রশাসন এই অভিযান পরিচালনা করেছে। কোনো ডাক্তারের সাথে দালালদের সংযোগ রয়েছে এমন কোনো তথ্য পেলে আমরা তার বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা গ্রহণ করবো।

সম্পাদনা : মিঠুন রাকসাম

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত