প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

তীব্র স্রোতে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়ায় পারের অপেক্ষায় ৪ শতাধিক ট্রাক

মো: ফরহাদ উজজামান: তীব্র স্রোতের কারণে পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া নৌরুটে ফেরি চলাচল বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। ফেরিগুলোকে স্রোতের বিপরীতে চলতে হিমশিম খেতে হচ্ছে। এতে পাটুরিয়া ঘাটের দুটি টারমিনালে চার শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক আটকা পড়েছে।

জানা যায়, তীব্র স্রোতে ফেরি পারাপারে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে এখন তিন গুণ সময় বেশি লাগছে। গড়ে প্রতিটি পণ্যবাহী ট্রাক ঘাটপার হতে দুই থেকে তিনদিনও সময় লেগে যাচ্ছে।

এমন পরিস্থিতির মুখে ফেরি কর্তৃপক্ষ পাটুরিয়া ফেরিঘাট অভিমুখী আসার আগে তথ্য নিয়ে জেনেশুনে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্পোরেশন (বিআইডব্লিউটিসি) আরিচা এরিয়া অফিসের ডিজিএম মো. আজমল হোসেন জানান, পাটুরিয়া ঘাটের দুটি টার্মিনালে চার শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক আটকে আছে।

যাত্রীবাহী বাস অগ্রাধিকার ভিত্তিতে পার করা হচ্ছে। যে কারণে পণ্যবাহী ট্রাকগুলো সংখ্যায় কম পার হচ্ছে।
তিনি জানান, ঘাটের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে পুলিশের পক্ষ থেকে ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের বিভিন্ন পয়েন্টে ঘাট অভিমুখে পণ্যবাহী বিভিন্ন ধরনের যানবাহন আটকে রাখা হচ্ছে।

এ ছাড়া ফেরি সংকট এবং ফেরিগুলো বেশ পুরনো হওয়ায় স্রোতের বিপরীতে চলাচল করতে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে দ্বিগুণ সময় লাগছে।

ফলে পাটুরিয়া ঘাটে চার শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাক ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে। এতে চরম দুর্ভোগে পরেছে যাত্রী ও চালকরা।

অন্যদিকে যাত্রীবাহী দূরপাল্লার বাসগুলোকে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে আগে পার করা হলেও তাদের দীর্ঘ সময় ঘাটে বসে থেকে পার হতে হচ্ছে।

বিআইডব্লিউটিসির পাটুরিয়া ঘাটের মেরিন বিভাগের সহকারী মহাব্যবস্থাপক মো. আবদুস সোবহান জানান, উজান থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে নদীতে দ্রুত পানি বৃদ্ধি পায়। এতে প্রবল স্রোতের কারণে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে।

এ ছাড়া স্রোত ফেরিকে মূল চ্যানেল থেকে দুই-তিন কিলোমিটার ভাটিতে নিয়ে যাচ্ছে।

এতে করে স্বাভাবিক সময়ের চেয়ে বেশি সময় লাগছে। বিশেষ করে দৌলতদিয়া পয়েন্টে নদীর স্রোতের গতিবেগ সবচেয়ে বেশি।

এ কারণে ফেরির ট্রিপ সংখ্যাও কমে গেছে। এ ছাড়া কয়েকটি ফেরি বেশ পুরনো হওয়ার কারণে ভরা নদীতে স্রোত ঠেলে চলতে গিয়ে মাঝে মাঝে বিকল হয়ে পড়ছে। ফলে ঘাটে যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পেয়েছে। যুগান্তর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত