প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চোরাচালানের সময় তেলের ট্যাংকার আটক করল ইরান

রাশিদ রিয়াজ : ইরানের বিপ্লবী গার্ড বাহিনী আইআরজিসি ১০ লাখ লিটার তেল নিয়ে ইরান থেকে একটি ট্যাংকার রওনা দেয়ার পর আটক করতে সমর্থ হয়েছে। ইরানের বার্তা সংস্থা ফার্স এ খবর দিলেও সিএনএন ব্রেকিং নিউজ দিয়ে বলেছে ওই ট্যাংকারে ১০ লাখ ব্যারেল তেল রয়েছে। আইআরজিসি লার্ক দ্বীপ থেকে ওই ট্যাংকারটি আটক করে। তবে কোনো বিদেশি ট্যাংকার আটকের কথা নাকচ করে দিয়েছে ইরান। বৃহস্পতিবার আইআরজিসি এ তথ্য জানিয়ে দিন কয়েক আগে অন্য দেশের একটি ট্যাংকার আটকের যে অভিযোগ উঠেছিল ইরানের বিরুদ্ধে তা নাকচ করে দিয়েছে তেহরান। ফার্স/সিএনএন

এক বিবৃতিতে আইআরজিসি’র নৌবাহিনীর পক্ষ থেকে বলা হয় পশ্চিমা মিডিয়াগুলোতে ইরানের বিরুদ্ধে তেলের ট্যাংকার আটকের যে অভিযোগ তোলা হচ্ছে তা মিথ্যা। পারস্য উপসাগরে আটক ওই ট্যাংকারটি নিয়মিত টহলদানের সময় ঘটে এবং দক্ষিণ লার্ক দ্বীপ থেকে ১০ লাখ লিটার তেল চোরাচালান করে নিয়ে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর তা আটক করা হয়। ওই ট্যাংকারটির ধারণক্ষমতা ২০ লাখ লিটার। তাতে ১২ জন বিদেশি নাবিক ছিল। ইরান থেকে তেল চোরাচালান করে কোনো বিদেশি ট্যাংকারে সরবরাহের জন্যে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। কিন্তু আইআরজিসি’র টহলে তা ধরা পড়ে।

ট্যাংকার আটকের ঘটনাটি ইরানের বিচার বিভাগ পর্যবেক্ষণ ও পর্যালোচনা করে দেখছে। ইরানের জলসীমায় কোনো চোরাচালান বা এমন কোনো জাহাজের উপস্থিতি যা দেশটির স্বার্থে আঘাত হানতে বা নিরাপত্তা বিঘিœত করতে পারে তা মোকাবেলা করার ব্যপারে আইআরজিসি ২৪ ঘন্টা সক্রিয়ভাবে তৎপর রয়েছে বলেও ওই বিবৃতিতে বলা হয়। এদিকে ইরানের এ ট্যাংকার আটকের পর আন্তর্জাতিক বাজারে তেলের দর ১ শতাংশ বৃদ্ধি পেয়েছে বলে রয়টার্স জানিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত