প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

১৩ নদীর ২৩ পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার উপরে প্রবাহিত হচ্ছে

নুর নাহার : তের নদীর তেইশ পয়েন্টে পানি বিপৎসীমার উপর। বুধবার ভোর ৬টা থেকে পরবর্তী আটচল্লিশ ঘণ্টায় ব্রহ্মপুত্র, যমুনার পানি আরও বাড়বে। সেইসঙ্গে গোয়ালন্দ পয়েন্টে বিপৎসীমা ছাড়াবে পদ্মার পানি। এতে উত্তর ও মধ্যাঞ্চলে বন্যা পরিস্থিতি অবনতির আশঙ্কা করছে বন্যা পূর্বাভাস কেন্দ্র। ইনডিপেনডেন্ট টিভি ১০:০০

গাইবান্ধার বাহদুরাবাদ পয়েন্টে মঙ্গলবার সকাল ৯টায় বিপৎসীমার ১৩৭ সেন্টিমিটার উপরে ছিলো যমুনার পানি। যা গত ত্রিশ বছরের রেকর্ড ভেঙেছে।

ব্রহ্মপুত্র অববাহিকার কুড়িগ্রাম ও চিলমারিতে ভয়াবহ রূপ নিয়েছে বন্যা। যমুনা অববাহিকার সিরাজগঞ্জ, বগুড়া ও জামালপুরে নদীর পানি বিপৎসীমার ওপরে। চিলমারী, ফুলছড়ি ও বাহাদুরাবাদ পয়েন্টে বিপৎসীমার প্রায় এক মিটার উপরে রয়েছে যমুনার পানি।

যমুনার প্রভাবে টাঙ্গাইলের ধলেশ্বরী নদীর রাসেলঘাট পয়েন্টে পানি কূল ছাপিয়ে গেছে। এতে মানিকগঞ্জেও হবে বন্যা। এদিকে পদ্মা নদীও ফুঁসে উঠেছে। মুন্সিগঞ্জের ভাগ্যকূল ও ফরিদপুরে গোয়ালন্দ পয়েন্টে পদ্মার পানি বিপৎসীমার উপরে যাবে বলে সতর্ক করেছে বন্যা পূর্বাভাস কেন্দ্র।
এদিকে, আবহাওয়া অফিস জানায়, আগামী দুই-তিন দিন ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা নেই। তবে বঙ্গোপসাগরে সম্ভাব্য নিম্নচাপের কারণে এরপর সারাদেশে ভারী বৃষ্টির আশঙ্কা রয়েছে।

বন্যা পূর্বাভাস ও সতর্কীকরণ কেন্দ্র বলছে, সুনামগঞ্জ, সিলেট, মৌলভিবাজারের বন্যা পরিস্থিতি উন্নতি হচ্ছে। সেই সঙ্গে সাঙ্গু, মাতামুহুরীর পানি কমতে শুরু করায় চট্টগ্রামের পরিস্থিতি উন্নতির দিকে।
সম্পাদনা : রেজাউল আহ্সান

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত