প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের ঝুঁকি কিছুদিন থাকবে, বললেন সিটিটিসি প্রধান মনিরুল

সুজন কৈরী : ডিএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও সিটিটিসির প্রধান মো. মনিরুল ইসলাম বলেছেন, নানা কারণে বাংলাদেশে জঙ্গি কর্মকাণ্ডের ঘটনায় কিছুটা অস্থিরতা তৈরি হয়েছে। এক ধরনের ক্রান্তিকাল চলছে জঙ্গি তৎপরতা নিয়ে। নিউজিল্যান্ডের মসজিদে এবং শ্রীলঙ্কার গীর্জায় হামলার ঘটনার পর বাংলাদেশে জঙ্গিবাদের ঝুঁকি কিছুটা বেড়েছে। যা কিছুদিন থাকবে। মঙ্গলবার রাজধানীর লালমাটিয়া মহিলা কলেজের অডিটোরিয়ামে জঙ্গিবাদ বিরোধী শপথ বাক্য পাঠ ও সহিংস উগ্রবাদ বিরোধী বিতর্ক প্রতিযোগিতার বিজয়ী দলগুলোকে সংবর্ধনা প্রদান অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিশ্বে নানা ঘটনার প্রেক্ষিতে আইএস ও আল-কায়দার সাংগঠনিক কার্যক্রম বিস্তার করে জঙ্গিবাদের যে ঢেউ তৈরি হয়েছিল তা আমরা মোকাবেলা করতে সক্ষম হয়েছি। তবে আমাদের হত্যা, নারী-শিশু নির্যাতন, মাদক ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে আরো ঐক্যবদ্ধভাবে দাঁড়াতে হবে। উগ্রবাদ শুধুমাত্র ধর্মের কারণে হয় না। ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা দিয়ে সহিংস উগ্রবাদ রুখে দেয়ার জন্য মননশীল মানুষ তৈরি করতে হবে। স্কুল কলেজে পর্যাপ্ত খেলাধুলার ব্যবস্থা করতে হবে। যুক্তি মনস্ক মানুষ হিসেবে শিক্ষার্থীরা যাতে গড়ে উঠতে পারে সেজন্য বিতর্ক অনুষ্ঠানসহ অন্যান্য সাংস্কৃতিক কার্যক্রম আরো বেশি বেশি করে করতে হবে। সোশ্যাল মিডিয়ার নিরপেক্ষ ব্যবহার নিশ্চিত করতে হবে। অন্য ধর্ম-বর্ণের মানুষের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হতে হবে। মনে রাখতে হবে ইসলাম কখনো হত্যা বা সহিংসতাকে সমর্থন করে না। আমাদেরকে প্রিয় নবীর মত সহনশীল ও পরমত সহিষ্ণু হতে হবে। ধর্মের প্রকৃত শিক্ষা সকলের মাঝে ছড়িয়ে দিতে হবে।

প্রধান বক্তা হিসেবে ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ বলেন, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ বিস্তারে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্র থাকলেও তা মোকাবেলায় আমাদের আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী সর্বদা সচেষ্ট রয়েছে। এখানেই সব ধর্মের-বর্ণের মানুষের এক অপূর্ব মিল-বন্ধন রয়েছে। বিচ্ছিন্ন দু-একটি ঘটনা ছাড়া মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রীস্টান প্রত্যেকেই যার যার ধর্ম শান্তিপূর্ণভাবে পালন করছে। তবে যখন আমরা দেখি নিউজিল্যান্ডে মসজিদে নামাজরত অবস্থায় মুসলমানদের উপর হামলা করে মানুষ হত্যার করা হয় এবং এর কিছুদিন পর শ্রীলংকায় গীর্জায় প্রার্থনারত অবস্থায় খ্রীস্টান সম্প্রদায়ের উপর হামলা করে মানুষ মারা হয় তখনই আমরা শংকিত হই। এ কারনে আমাদের সতর্ক থাকতে হবে।

লালমাটিয়া মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর ড. মো. রফিকুল ইসলামের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা হিসেবে শিক্ষক-শিক্ষার্থীসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে জঙ্গীবাদ বিরোধী শপথ বাক্য পাঠ করান ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ চৌধুরী কিরণ। ডিবেট ফর ডেমোক্রেসির আয়োজনে মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের সহযোগিতায় এ অনুষ্ঠানে বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রায় ৮শ’ শিক্ষক শিক্ষার্থী উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন অনুষ্ঠানের আহবায়ক ড. তাজুল ইসলাম চৌধুরী তুহিন, মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের ডেপুটি প্রোগ্রাম ম্যানেজার মো. মনিরুজ্জামান মুকুল ও লালমাটিয়া মহিলা কলেজ ডিবেটিং ক্লাবের মডারেটর ড. ফেরদৌস আরা খানম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত