প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিশ্বকাপে সর্বোচ্চ রানে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচটাই শীর্ষে

স্পোর্টস ডেস্ক : বাংলাদেশ দলের এবারের বিশ্বকাপটা স্মরণীয় হয়ে থাকারই কথা। সেমিফাইনালের আগে বিদায় নিলেও সাকিব আল হাসানের অকিমানবীয় পারফরম্যান্স এবং বাংলাদেশ দলের রান তাড়া করার রেকর্ড নজর কেড়েছিলো ক্রিকেট বোদ্ধাদের। বিশ্বকাপ তো শেষ, এবার সবাই হিসাবে বসেছে কে সেরা, কোনটা সেরা, সর্বোচ্চ ও সর্বনিম্ন ইতিহাসের খেরোখাতা সংরক্ষণ চলছে। সেখানেও বাংলাদেশ দলের নাম দেখা গেলো উপরের দিকে।

নটিংহ্যামের ট্রেন্টব্রিজে গ্রুপপর্বে বাংলাদেশকে ৪৮ রানে হারিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। বড় রান তাড়ায় নিজেদের সর্বোচ্চ স্কোর গড়েও অস্ট্রেলিয়ার কাছে হেরে যায় বাংলাদেশ। শুধু দ্বাদশ বিশ্বকাপে নয়, ওয়ানডে বিশ্বকাপের সব আসর মিলিয়ে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচটাই শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে।

দ্বাদশ বিশ্বকাপের ২৬তম ম্যাচে বাংলাদেশ-অস্ট্রেলিয়া তোলে ৭১৪ রান। এটিই বিশ্বকাপের যে কোনো আসরে এক ম্যাচে সর্বোচ্চ সংগ্রহ। এর আগে ২০১৫ বিশ্বকাপে সিডনিতে অস্ট্রেলিয়া-শ্রীলঙ্কা ম্যাচে ৯৬.২ ওভারে ১৮ উইকেট পতনের ম্যাচে উঠেছিল বিশ্বকাপের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৬৮৮ রান। সেই ম্যাচে অস্ট্রেলিয়া ৯ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ৩৭৬ রান। লঙ্কানরা ৯ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ৩১২ রান।

এই তালিকায় তিনে থাকা ম্যাচটি চলতি বিশ্বকাপের। পাকিস্তান-ইংল্যান্ড ম্যাচে গত ৩ জুন ১০০ ওভারে ১৭ উইকেট হারিয়ে দুই দল করেছিল মোট ৬৮২ রান। যেখানে আগে ব্যাট করে পাকিস্তান ৮ উইকেট হারিয়ে তোলে ৩৪৮ রান। আর ইংলিশরা ৯ উইকেট হারিয়ে থামে ৩৩৪ রানের মাথায়। সেটিও ছিল নটিংহ্যামের ট্রেন্ট ব্রিজে।

তালিকায় চারে জায়গা করে নেওয়া ম্যাচটি ছিল ২০১১ বিশ্বকাপের। ভারতের চিন্নাস্বামী স্টেডিয়ামে ৯৯.৫ ওভারে ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচে উঠেছিল ৬৭৬ রান। উইকেট পড়েছিল ১৮টি। ভারত অলআউট হওয়ার আগে তোলে ৩৩৮ রান। ইংলিশরাও ৮ উইকেট হারিয়ে তুলেছিল ৩৩৮ রান। পাঁচে থাকা ম্যাচটি ২০০৭ বিশ্বকাপের। যেখানে ৯৮ ওভারে অস্ট্রেলিয়া-দক্ষিণ আফ্রিকা করেছিল মোট ৬৭১ রান। ওয়েস্ট ইন্ডিজের ওয়ার্নার পার্ক স্পোর্টিং কমপ্লেক্সে সেই ম্যাচে উইকেট পড়েছিল ১৬টি। ৬ উইকেট হারিয়ে অজিরা তোলে ৩৭৭ রান। দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হওয়ার আগে তোলে ২৯৪ রান।

এই তালিকায় ছয় নম্বরে থাকা ম্যাচটি এই বিশ্বকাপের। গত ৯ জুন দ্য ওভালে ভারত-অস্ট্রেলিয়া ম্যাচে ১০০ ওভার খেলা হয়। যেখানে ১৫ উইকেটের পতন হয়। ভারত ৫ উইকেট হারিয়ে তোলে ৩৫২ রান। জবাবে অজিরা অলআউট হওয়ার আগে তোলে ৩১৬ রান। ম্যাচটি ছিল মোট ৬৬৮ রানের।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত