প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

পদ্মায় ভাঙনের আশঙ্কায় নড়িয়াবাসী

নুর নাহার : এবারো বর্ষায় পদ্মার ভাঙনের আশঙ্কায় শরীয়তপুরের নড়িয়ার মানুষ। পদ্মার স্রোত মাঝ নদীতে ফেরাতে চর খননের উদ্যোগ নেয়া হলেও কাজ খুব একটা এগোয়নি। বর্ষা এসায় স্রোত বেড়েছে নদীতে। ইনডিপেনডেন্ট টিভি ১০:০০

এই পরিস্থিতিতে বেশিরভাগ ড্রেজার সরিয়ে নিয়েছেন ঠিকাদাররা। গতবছর পদ্মার তীব্র ভাঙনের মুখে পড়ে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলা। নদীতে বিলীন হয় বহু ঘরবাড়ি, গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা।নড়িয়াকে পদ্মার ভাঙন থেকে রক্ষা করতে মূল স্রোত ডান তীর থেকে মাঝ নদীতে ফেরানোর উদ্যোগ নেয়া হয়। এর আওতায় চর খনন শুরু করে পানি উন্নয়ন বোর্ড।

ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান খুলনা শিপইয়ার্ডের সঙ্গে কাজ করছে বেঙ্গলগ্রুপ ও সাগর ট্রেডার্স নামের দুটি প্রতিষ্ঠান।

তবে শুরু থেকেই খনন কাজে ধীরগতির অভিযোগ নড়িয়ার মানুষের। ৩০ জুনের মধ্যে ৬০ লাখ ঘন মিটার বালু অপসারণের লক্ষ্য থাকলেও ৬ জুলাই পর্যন্ত অপসারণ করা হয়েছে ১৮ লাখ ঘন মিটার। আগে সাতটি ড্রেজার কাজ করলেও বর্ষা আসায় স্রোত বাড়ার কারণে এখন কাজ করছে একটি ড্রেজার। এই পরিস্থিতিতে নানা শঙ্কা ভর করছে নদী তীরের মানুষের মধ্যে।

খনন কাজ চালিয়ে যাওয়ার কথা জানিয়েছে পানি উন্নয়ন বোর্ড। স্রোত মাঝ নদীতে রাখা যাবে বলেও আশা তাদের।

নড়িয়াকে ভাঙন থেকে বাঁচাতে পদ্মার মূল স্রোত ডান তীর থেকে মাঝ নদীতে ফেরানোর উদ্যোগে খনন হচ্ছে মোট ১২ কিলোমিটার চর। এই প্রকল্পে খরচ হচ্ছে ২শ ৪০ কোটি টাকা।সম্পাদনা : রাকা চৌধুরী

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত