প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আমলাতন্ত্র কর্পোরেট মাফিয়াদের দ্বারা আদিষ্ট হয়ে ফারুক স্যারকে শেষ করে দিতে চাইছে

শেখ আদনান ফাহাদ : বঙ্গবন্ধু দেশের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়কে ৭৩-এর অধ্যাদেশ দিয়েছিলেন একটি স্বাধীন, মুক্ত, প্রগতিশীল সমাজ গঠনের উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে। জাহাঙ্গীরনগর, ঢাকা, রাজশাহী, ও চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের একটা অংশ বঙ্গবন্ধু কর্তৃক প্রাপ্ত স্বাধীনতাকে ব্যবহার করেছে নিজেদের ব্যক্তিগত লাভের জন্য। যেখানে চাকরি করেন, সেখানেই এই লোভী অংশটি সবচেয়ে কম সময় দেন আর সে সময় ব্যয় করেন বাইরে। ফারুক স্যারকে আমি চিনি, কিন্তু জানিনা খুব বেশি। সমাজ পরিবর্তনের মানসে হোক আর কোনো লাভজনক প্রজেক্টের অধীনে হোক, তিনি একটা গবেষণা কাজ করে সাড়া ফেলেছেন। এখন দেশের আমলাতন্ত্র কর্পোরেট মাফিয়াদের দ্বারা আদিষ্ট হয়ে ফারুক স্যারকে শেষ করে দিতে চাইছে; কিন্তু কিছু করতে পারছে না; এর মূল কারণ কিন্তু বঙ্গবন্ধুর দিয়ে যাওয়া ৭৩ এর অধ্যাদেশ। বঙ্গবন্ধু হত্যাকা-ের পর দেশের আমলা শ্রেণির সুযোগ সুবিধা ফুলে ফেঁপে উঠেছে।

এরা দিন দিন নিজেদের সুবিধা বাড়িয়ে চলেছে। এরা এমনই শক্তিশালী হয়ে উঠেছে যে, একজন বিজ্ঞানীর গবেষণা করার অধিকারও কেড়ে নিতে চাইছে। আমার ধারনা সমাজ অল্প অল্প করে বুঝতে পারছে এখন। আমলাতন্ত্র বদলে দিতে চেয়েছিলেন জাতির পিতা। অথচ সেই পাকিস্তান আমলের আমলাতন্ত্রই এখন সবচেয়ে বেশী আগ্রাসী আর শক্তিশালী। তবে সবার উপরে সাধারণ মানুষ। আমার ধারনা ফারুক স্যারের পক্ষে গণআন্দোলন হবে একটা। যে সচিব একজন বিজ্ঞানীর গবেষণা করার অধিকার কেড়ে নিতে চাইছে, তাকে অবিলম্বে বরখাস্ত করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত