প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আজ শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস

সালেহ্ বিপ্লব : ড. ফখরুদ্দীন আহমদের নেতৃত্বাধীন সেনাসমর্থিত তত্ত্বাবধায়ক সরকার ২০০৭ সালের এইদিনে ধানমন্ডির বাসভবন থেকে আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনাকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারের আগে শেখ হাসিনার নামে একাধিক মামলা দেয়া হয়।

গ্রেপ্তারের আগে দেশবাসী ও দলীয় নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে চিঠি লেখেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চিঠিতে তিনি লিখেন, ‘‘প্রিয় দেশবাসী, আমার সালাম নিবেন। আমাকে সরকার গ্রেফতার করে নিয়ে যাচ্ছে। কোথায় জানি না। আমি আপনাদের গণতান্ত্রিক অধিকার ও অর্থনৈতিক মুক্তির লক্ষ্যেই সারাজীবন সংগ্রাম করেছি। জীবনে কোনও অন্যায় করিনি। তারপরও মিথ্যা মামলা দেয়া হয়েছে। উপরে আল্লাহ রাব্বুল আল আমীন ও আপনারা দেশবাসী, আপনাদের উপর আমার ভরসা।

আমার প্রিয় দেশবাসী, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীদের কাছে আমার আবেদন, কখনও মনোবল হারাবেন না। অন্যায়ের প্রতিবাদ করবেন। যে যেভাবে আছেন, অন্যায়ের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন। মাথানত করবেন না। সত্যের জয় হবেই। আমি আছি আপনাদের সাথে, আমৃত্যু থাকবো। আমার ভাগ্যে যাই ঘটুক না কেন, আপনারা বাংলার জনগণের অধিকার আদায়ের জন্য সংগ্রাম চালিয়ে যান। জয় জনগণের হবেই।

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়বই। দুঃখী মানুষের মুখ হাসি ফোটাবই। জয় বাংলা, জয় বঙ্গবন্ধু”

এই দিন ভোরে সুধাসদন থেকে গ্রেপ্তারের পর তাকে নিম্ন আদালতে হাজির করা হয়। সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয় জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় স্থাপিত বিশেষ সাবজেলে।

২০০৮ সালের ১১ জুন ৮ সপ্তাহের জামিনে মুক্তি দেয়া হয় শেখ হাসিনাকে। মুক্তি পেয়েই চিকিৎসার উদ্দেশ্যে যুক্তরাষ্ট্র যান তিনি। চিকিৎসা শেষে সেখান থেকে ৬ নভেম্বর দেশে ফেরেন শেখ হাসিনা। কয়েক দফায় জামিনের মেয়াদ বাড়ানোর পর দেশে ফিরলে তাকে স্থায়ী জামিন দেন আদালত।

শেখ হাসিনার কারাবন্দি দিবস উপলক্ষে আওয়ামী লীগ ও এর বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠন আলোচনা সভা ও সমাবেশসহ নানা কর্মসূচীর আয়োজন করেছে।

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত