প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কর্মক্ষেত্রে অক্সিজেনের ঘাটতি পূরণ করছে শখের গাছ

শাহীন খন্দকার : রাজধানীর ইট-কাঠ-পাথরের দেওয়ালে আবদ্ধ নগর জীবনের ব্যাস্ততায় কর্মমুখি মানুষেরা সবুজে ঘেরা প্রকৃতির স্পর্শ না থাকায় একঘেঁয়ে হয়েগেছে মানুষের মন। তাই একটু প্রশান্তি ও সজীবতার জন্য নগরবাসীরা ছুটে যান শহর থেকে দূরে সবুজের কাছে। ছুটে যান সবুজ প্রকৃতির বুকে। আবার অনেকেই নিজের ড্রইংরোম কিংবা বারান্দাকে সাজিয়ে তোলেন সবুজ গাছ-পালায়।

অন্যদিকে চাকুরিজীবীদের দিনের একটি বড় অংশ থাকতে হয় অফিসে। আর তাই ব্যাংক, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, বিভিন্ন কর্পোরেট অফিসেও আজকাল দেখা যায় সবুজের ছোঁয়া।

অফিস বলতেই নানা কাজ, গাদা গাদা কাজগপত্র, ফাইল এসব বুঝি আমরা । আর সেই চিন্তা চেতনা থেকে বের হয়ে প্রকৃতি প্রেমীরা নিজের অফিস ডেস্কে সাজাচ্ছেন নানা ধরণের ইনডোর প্ল্যান্ট দিয়ে। আর এজন্য বেছে নেওয়া হয় ছোট ধরনে কোন সবুজ গাছ, ক্যাকটাস, নানা ধরনের অর্কিড, ফার্ন ও সাকুলেন্ট প্রজাতির বিভিন্ন গাছ। নিজের রোমের সাথে থাকা ছোট কার্নিশে চাইনিজ গোলাপ,বনসাই পাতাবাহারসহ ঘাসফুলের শোভাও দেখা যায়।
২০১১ সালে আমেরিকান ন্যাশনাল সেন্টার ফর বায়োটেকনোলজি ইনফরমেশন  এর একটি গবেষণা পত্রে বলা হয়, কর্মক্ষেত্রে প্রাকৃতিক ছোঁয়া কর্মীদের কাজে আগ্রহ বাড়ানোর পাশাপাশি মানসিক চাপ কমাতে সাহায্য করে। অফিস ডেস্কে গাছপালা রাখলে যেসব সুবিধা হয়, এবারে তা জেনে নেয়া যাক। কর্মব্যাস্ত পরিবেশে কিছুটা সবুজের উপস্থিতি থাকলে অফিসের যে শুধু সৌন্দর্য্য বৃদ্ধি পায়, তা নয়। কর্মীদের মানসিক চাপকমে যায়। কর্মীদের একঘেয়েমী কাটে। কাজের জন্য বাড়ে কর্মস্পৃহা। এতে করে কাজের মান ভালো হয়। বাড়ে প্রোডাক্টিভিটি। পাশাপাশি গাছেদের সালোক-সংশ্লেষণের কারনে অফিসের বাতাস বিশুদ্ধ থাকে।

অফিসিয়াল কর্মপরিবেশে বিভিন্ন সৌন্দর্য বর্ধক গাছপালা রাখা নিয়ে কথা হয় পরিবেশ কর্মী ইবনুল সৈয়দ রানা। তিনি বাসা-বাড়ির পাশাপাশি অফিসে বা ডেস্কে একটি গাছ রাখার প্রয়োজনীয়তার কথা বলেন। তিনি বলেন, গাছপালা রাখা একটি সৌখিনতা ও সুস্থ্য মানসিকতার পরিচয়। ঘরের তাপমাত্রা নিয়ন্ত্রণ, শব্দ দূষণ রোধ ও মানবদেহের জন্য অতি প্রয়োজনীয় অক্সিজেন তৈরিতে গাছপালার অপরিহার্য। সেই সঙ্গে চোখ ও মনের প্রশান্তিতে গাছের বিকল্প নেই বল্ওে জানান এ পরিবেশ কর্মী। নিজ উদ্যোগে বিভিন্ন জনের মধ্যে সৌন্দর্য বর্ধক গাছপালা বিতরণ করে যাচ্ছেন ইবনুল সৈয়দ রানা। ¯বপ্ন দেখেন, সবুজ পৃথিবীর কনসেপ্ট মাথায় রেখে একদিন সবাই ঘরে ও নিজ নিজ কর্মস্থলকে সাজিয়ে তুলবে প্রকৃতির ছোঁয়ায়।

নারী সাংবাদিক প্রিয়াঙ্কা আচার্য্য বলেন, অফিসে দীর্ঘ সময় পার করতে হয়, তাই জায়গাটি হ্ওয়া চাই মনের মতো। মনের প্রশান্তির জন্য তাই তিনি কিছু গাছ রেখেছেন তার ডেস্কে। তিনি বলেছেন পরিবেশ রক্ষায় গাছ লাগানোর পাশাপাশি , নিজের ঘর ও কাজের জায়গাকেও সাজিয়ে তুলুন গাছ রোপণের মাধ্যমে সবুজ করে রাখুন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত