প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ফেডারেল রিজার্ভ সুদের হার কমালে চীনের ওপর চাপ কমবে, আশংকা মার্কিন বিশেষজ্ঞদের

নূর মাজিদ : প্রবৃদ্ধির গতি কমে আসার কারণে বৈদেশিক বাণিজ্যে মার্কিন পণ্য রপ্তানি বৃদ্ধির পক্ষে ট্রা¤প। এইক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের প্রচলিত বাঁধা নিজ মুদ্রার স্থিতিশীল এবং উচ্চদর। এই সমস্যার সমাধান এবং রপ্তানিতে প্রণোদনা দেয়ার লক্ষ্যেই কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার কমাক এটাই চায় ট্রা¤প প্রশাসন। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় ইতিপূর্বে সুদের হার কমানো থেকে সরে আসলেও, বর্তমান প্রেক্ষপট কিছুটা ভিন্ন। চীনের সঙ্গে বাণিজ্য সংঘাত যুক্তরাষ্ট্রের প্রবৃদ্ধির ওপর প্রভাব ফেলতে শুরু করেছে। তাই অচিরেই মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার কর্তন করবে এমন সম্ভাবনা দেখা যাচ্ছে। সূত্র : সিএনবিসি।

মার্কিন কংগ্রেসে দুই দিনব্যাপী এক শুনানিতে অংশ নিয়ে ফেড চেয়ারম্যান জেরোম পাওয়েল এমন ইঙ্গিতই দিয়েছেন। শিথিল মার্কিন মুদ্রার কারণে উৎপাদন বাড়বে এমন সম্ভাবনয়া এসঅ্যান্ডপি-৫০০ বাজারের সূচক যার কারণে প্রথমবারের মতো ৩ হাজার পয়েন্ট অর্জন করে। একইসঙ্গে, ট্রেজারি বন্ডেরও দাম কমে।

তবে মার্কিন বিশেষজ্ঞদের শঙ্কা যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক সুদের হার কমালে তার ফলে চীনও লাভবান হবে। ফলে চীনের ওপর যে অর্থনৈতিক চাপ সৃষ্টির মার্কিন চেষ্টা রয়েছে, সেটা সাময়িকভাবে হলেও অকার্যকর হয়ে পড়বে। বিশেষ করে, যখন চীনের অর্থনীতির গতি কমে আসাকে যুক্তরাষ্ট্র নিজের বিজয় হিসেবে দেখছে তার মাঝেই দেশটিকে অর্থনৈতিকভাবে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ দিতে নারাজ মার্কিন বিশেষজ্ঞরা। এতে যুক্তরাষ্ট্র বাণিজ্য আলোচনায় দর কষাকষিতে দুর্বল অবস্থানে থাকবে, বলেও আশংকা করেছেন তারা।

এই বিষয়ে জেপি মরগ্যান অ্যাসেট ম্যানেজমেন্টের বৈশ্বিক বাজার কৌশলবিদ হান্না আন্ডারসন বলেন, ‘ফেড যদি সুদের হার কমায় তাহলে আমি মনে করিনা এতে চীন তাৎক্ষনিকভাবে বিশাল উপকৃত হবে। তবে এটাও সত্য এর ফলে পিপলস ব্যাংক অব চায়না (কেন্দ্রীয় ব্যাংক) অর্থনৈতিক চাপ মোকাবেলায় একটি সাময়িক বিরতি পাবে। যার সুযোগ নিয়ে তারাও পাল্টা ইউয়ানের দর কমানোর পদক্ষেপ নিতেই পারে। ফলে মার্কিন মুদ্রার সঙ্গে ইউয়ানের বিনিময় দর তুলনামূলক স্থিতিশীল অবস্থানেই থাকবে। তবে এটাও সত্য যে ডলারের দর কমলে ট্রেজারি বন্ডে বিনিয়োগ বাড়বে। চীনের হাতে প্রচুর মার্কিন টেজারি বন্ড রয়েছে। যার দর বৃদ্ধি স্বাভাবিকভাবেই অর্থনৈতিক চাপ মোকাবেলায় কাজে লাগাবে চীনের কেন্দ্রীয় ব্যাংক (পিবিওসি)।’

পিবিওসি সুদের হার কমাবে এই বিষয়ে নিশ্চিত চায়না বেইজি বুকের শীর্ষ নির্বাহী লেল্যান্ড মিলার। বেইজি বুক চীনের সাড়ে ৩ হাজার কো¤পানির বাণিজ্যিক জরিপের তথ্য প্রকাশ করে থাকে। মিলার জানান, ‘ফেড সুদের হার কমানোর সঙ্গেসঙ্গেই পিবিওসি একই পদক্ষেপ নেবে। তবে এই পদক্ষেপের সুযোগে চীনের বৃহৎ সব কর্পোরেশন পণ্য উৎপাদন এবং রপ্তানি বাণিজ্যে খুব বেশি লাভ করতে পারবেনা। তবে লাভবান হবে চীনের রাষ্ট্র নিয়ন্ত্রিত কো¤পানিগুলো। যেটা চীন সরকারের দেনা পরিস্থিতির সাময়িক উন্নতি করবে।’

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত